সেন্টার ফর হিউম্যান রাইটসের আলোচনায় বক্তারা রাজনৈতিক দাবি আদায়ে সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা হয়েছে

রাজনৈতিক দাবি আদায় করতে গিয়ে বিভিন্ন সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করা হয়েছে৷ এ অবস্থায় আর নতুন কোনো দাবি না করে রাজনৈতিক দলগুলোর উচিত নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেয়া৷ বর্তমান ভোটার তালিকার যতোটা সম্ভব সংশোধন করেই সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব৷ গতকাল শনিবার রাজধানীর শেরাটন হোটেলে দি সেন্টার ফর হিউম্যান রাইটস আয়োজিত এক আলোচনা সভায় বক্তারা এ অভিমত জানান৷
সভায় সাবেক নির্বাচন কমিশনার বিচারপতি আবদুর রউফ বলেন, সম্প্রতি রাজনৈতিক দাবি-দাওয়াকে কেন্দ্র করে পার্লামেন্ট, সুপৃম কোর্ট ও নির্বাচন কমিশনের মতো সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের ভাবমূর্তি নষ্ট করা হয়েছে৷ এগুলোর ভূমিকাকে বিতর্কিত করা হয়েছে৷ এখনো এসব প্রতিষ্ঠানের যতোটুকু সাংবিধানিক মর্যাদা রয়েছে তা অক্ষুণ্ন রাজনৈতিক দলগুলোর উচিত নির্বাচনে ঝাপিয়ে পড়া৷ তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে এবার অনেক বাধা এসেছে৷ বিদেশি প্রতিষ্ঠান এনডিআই বিপুল সংখ্যক বাড়তি ভোটার থাকার কথা বলেছে৷ কিন্তু কিসের ভিত্তিতে তারা রিপোর্ট করেছে তা কারোই জানা নেই৷ এ রিপোর্টের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা যায়৷
বিচারপতি রউফ বলেন, কখনোই সম্পূর্ণ নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রণয়ন সম্ভব নয়৷ কেননা প্রতি মুহূর্তে ভোটার তালিকায় লোক যোগ হচ্ছে, আবার কিছু লোক ভোটার তালিকার বাইরে চলে যাচ্ছেন৷ তবে যতোটা সম্ভব ভোটার তালিকায় ভুল থাকলে সংশোধন করা উচিত৷ তিনি বলেন, এখন হাতে যতোটা সময় রয়েছে তা দিয়ে নির্বাচন করা সহজ হবে না৷ নানা ঘটনা প্রবাহে মাঠ পর্যায়ের প্রশাসনিক কাঠামো নষ্ট হয়ে গেছে৷ নির্বাচনী সংক্রান্ত যতো পৃন্টিংয়ের কাজ রয়েছে তা স্বল্পসময়ে সঠিকভাবে করার মতো প্রেস আমাদের দেশে নেই৷
অনুষ্ঠানে সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ আহমদ বলেন, বিচারপতিরা অনেক সময় ভুল রায় দিতে পারেন৷ পৃথিবীর অনেক দেশেই এ রকম ভুল সিদ্ধান্ত দেয়ার নজির রয়েছে৷ কিন্তু কোনো ক্ষেত্রেই বিচারকের রায় নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয় না৷ বাংলাদেশে বিচারপতির রায় নিয়ে প্রশ্ন তুলে আদালত প্রাঙ্গণে ভাংচুরসহ নৈরাজ্য তৈরি করা হয়েছে৷ এতে করে প্রতিষ্ঠানটির ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন্ন হয়েছে৷ এভাবে জুডিশিয়ারিসহ সব সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা ক্ষুণ্ন করা হচ্ছে৷
তিনি বলেন, সাংবিধানিক মর্যাদা ক্ষুণ্ন করে ১৪ দল একের পর এক দাবি তুলে যাচ্ছে৷ সব কিছুকেই তারা বিতর্কিত করে ফেলছে৷ অথচ গত সংসদেও আওয়ামী লীগ কার্যকর ভূমিকা রাখেনি৷ বিগত ২৩টি সংসদ অধিবেশনের নয়টিতেই তারা উপস্থিত ছিল না৷ তিনি ১৪ দলের প্রতি আর কোনো নতুন দাবি না তুলে অবিলম্বে নির্বাচনের অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে বলেন, কোনো ব্যক্তির পক্ষে একা নির্বাচনকে প্রভাবিত করা সহজ নয়৷ জনগণই ভোটের ভাগ্য নির্ভর করবে৷
সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল হাসান আরিফ বেশ কিছু সংস্কারের প্রস্তাব দিয়ে বলেন, সরকারের মেয়াদ পাচ বছরের স্থলে চার বছর করা যেতে পারে৷ এছাড়া কেউই দুই মেয়াদের বেশি প্রেসিডেন্ট বা প্রধানমন্ত্রী হতে পারবে না এমন আইনও করা যেতে পারে৷ তিনি বলেন, হাতে যতোটুকু সময় রয়েছে তার মধ্যেই ভোটার তালিকার ভুল-ভ্রান্তি সংশোধন করা যাবে৷ এ জন্য ওয়ার্ড এবং গ্রাম পর্যায়ের লোকজনের সহায়তা নেয়া যেতে পারে৷
অনুষ্ঠানে কলামিস্ট সাদেক খান বলেন, শুধু নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা করার জন্যই উপদেষ্টা পরিষদ গঠিত হলেও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা এর বাইরে অন্য কার্যক্রমে জড়িয়ে পড়ছেন৷ উপদেষ্টা পরিষদের অনেকের কার্যক্রম সময় মতো নির্বাচন হওয়ার পথে বাধা হিসেবে কাজ করছে বলে তিনি মন্তব্য করেন৷
নির্বাচন প্রক্রিয়ার নানা বিষয়ে জড়িত প্রতিষ্ঠান ডেমক্রেসিওয়াচের নির্বাহী পরিচালক তালেয়া রেহমান বলেন, তাদের প্রতিষ্ঠান থেকে পরিচালিত জরিপে ভুয়া ভোটারের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে৷ তেজগাওয়ের কৃশ্চিয়ান অধ্যুষিত এলাকায় কোনো ভোটার লিপিবদ্ধ করা হয়নি বলে জানান তিনি৷
সাবেক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) মইনুল হোসেন বলেন, অনেক দিনের পুঞ্জিভূত সমস্যার কারণেই বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থা চরম সঙ্কটাপন্ন হয়েছে৷ রাজনীতি এখন দারুণ লাভজনক ব্যবসা হয়ে দাড়িয়েছে৷ দুর্নীতি করেও রাজনীতিকরা পার পেয়ে যাচ্ছে৷ পৃথিবীর কোনো দেশেই অর্থনীতি ও সাধারণ মানুষের জীবন ধ্বংস করে রাজনীতি হয় না বলে তিনি মন্তব্য করেন৷
ঢাকা ইউনিভার্সিটির শিক্ষক আবু আহমেদ বলেন, বর্তমানে আমাদের দেশে যে গণতন্ত্র প্রচলিত রয়েছে তা আমাদের প্রয়োজন নেই৷ এ গণতন্ত্র সাধারণ মানুষের জন্য কোনো সুফল বয়ে আনেনি৷ বৃটিশ পদ্ধতির রাষ্ট্র ব্যবস্থার বদলে আমেরিকান পদ্ধতির রাষ্ট্র ব্যবস্থা চালু করা উচিত বলে তিনি মন্তব্য করেন৷
অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তৃতা করেন সোনালী ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যান মাহবুবউল্লাহ, ঢাকা চেম্বারের সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম, আমানুল্লাহ কবির, আসিফ নজরুল, প্রফেসর আতাউর রহমান, শাহ আবদুল হান্নান প্রমুখ৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=22558&issue=164&nav_id=7

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: