সেমিনারে ইউএন কোঅর্ডিনেটরের অভিমত ক্ষমতালোভী পলিটিশিয়ানরা দেশকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে

ক্ষমতালোভী পলিটিশিয়ানরা জাতিকে বিভক্ত করার মধ্য দিয়ে বাংলাদেশকে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে৷ এ অভিমত ব্যক্ত করেছেন ঢাকায় নিযুক্ত জাতিসংঘের (ইউএন) রেসিডেন্ট কোঅর্ডিনেটর রেনেটা ডেসালিয়েন৷ গতকাল বুধবার রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে ‘ইন্টার রিলিজিয়াস কোঅপারেশন ইন পিস মেকিং’ শীর্ষক এক সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন৷ ইটালি দূতাবাস ও ইন্সটিটিউট অফ হযরত মুহম্মদ (স.) যৌথভাবে এ সেমিনারের আয়োজন করে৷
সেমিনারে বাংলাদেশে নিযুক্ত ইওরো-পিয়ান কমিশনের অ্যামবাসাডর স্টেফান ফ্রোইন আশা প্রকাশ করে বলেন, চলমান অচলাবস্থা নিরসনের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে কেয়ারটেকার সরকার, নির্বাচন কমিশন ও সব রাজনৈতিক দল নমনীয়তার সঙ্গে সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রাখবে৷
ইন্সটিটিউট অফ হযরত মুহম্মদ (স.)-এর সভাপতি লে. জেনারেল (অব.) নুরদ্দীন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে বক্তব্য রাখেন ইটালির রাষ্ট্রদূত পিয়েটরো বেলারো, বাংলাদেশে ভ্যাটিকানের অ্যামবাসাডর পল চ্যাং ইন নাম, সাবেক মন্ত্রী ও জাতীয় পার্টির (জেপি) সেক্রেটারি জেনারেল শেখ শহীদুল ইসলাম, পাকিস্তান হাই কমিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি মোমেনা বন্দে, ঢাকা ইউনিভার্সিটির প্রফেসর আবদুল মান্নান প্রমুখ৷ এতে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন ব্যারিস্টার রিজোয়ানা ইউসুফ৷
ইওরোপিয়ান কমিশনের অ্যামবাসাডর স্টেফান ফ্রোইন আরো বলেন, গণতন্ত্রের জন্য শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রয়োজন৷ একই সঙ্গে শান্তির জন্যও গণতন্ত্র প্রয়োজন৷ গণতন্ত্র অস্বীকৃত হওয়ার পর সংঘাত শুরুর অনেক দৃষ্টান্ত আছে৷ বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ এর একটি উদাহরণ৷ তিনি আরো বলেন, সফলভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত করাসহ পূর্ণ গণতান্ত্রিক চর্চা অনুপস্থিত থাকলে একটি দেশ গৃহযুদ্ধের দিকে মোড় নেয়৷
জাতিসংঘের রেসিডেন্ট কোঅর্ডিনেটর রেনেটা ডেসালিয়েন আরো বলেন, নির্বাচনে সবার সুষ্ঠু প্রতিদ্বন্দ্বিতার লক্ষ্যে প্রেসিডেন্ট ও কেয়ারটেকার সরকারের প্রধান উপদেষ্টা, নির্বাচন কমিশন ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যেন সব পক্ষের জন্য সমান সুযোগ সৃষ্টি করে৷ এছাড়া তিনি বিভিন্ন দলের মধ্যে বিরোধ, রাজনৈতিক সহিংসতা ও শক্তি প্রয়োগের ঘটনা দূর করতে এবং গণতান্ত্রিক চর্চা বাড়াতে বাংলাদেশের রাজনীতিবিদদের প্রতি বিনীত আহ্বান জানান৷
তিনি আরো বলেন, গত ২৮ ও ২৯ অক্টোবরের সহিংসতা জাতিকে মর্মাহত করেছে৷ ক্ষমতালোভী রাজনীতিবিদরা জাতিকে বিভক্ত করার মধ্য দিয়ে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে৷ শুধু রাজনীতিবিদরা নয়, প্রশাসন, স্কুল, ইউনিভার্সিটি, পেশাজীবী সংগঠন, মিডিয়া এবং অন্যান্য সিভিল সোসাইটি গ্রুপও আজ দ্বিধাবিভক্ত৷ তিনি আরো বলেন, এটা দুঃখজনক ঘটনা যে, বাংলাদেশের রাজনীতি পথ হারিয়েছে এবং তার মহত্ উদ্দেশ্য ভুলে গেছে৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=23358&issue=171&nav_id=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: