ইসিকে ১৪ দল নির্বাচনের শেডিউল আবার বদলাতে হবে

১৪ দল বলছে, বর্তমানে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) হাতে যে সময় আছে সে সময়ের মধ্যে সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজন সম্ভব নয়৷ নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য করতে হলে ভোট গ্রহণের তারিখ পিছিয়ে দিয়ে নির্বাচনের শেডিউল পুনর্নির্ধারণ করতে হবে৷ সুষ্ঠু নির্বাচনের অন্যতম শর্ত হলো একটি নির্ভুল ভোটার তালিকা৷ কিন্তু সেই নির্ভুল তালিকা বর্তমানে ইসির হাতে নেই৷ সুতরাং ইসির উচিত নির্বাচন আয়োজনে নিজেদের অপারগতার কথা প্রেসিডেন্টকে অবগত করা৷
গতকাল শনিবার দুপুরের পর আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম মেম্বার সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের নেতৃত্বে ১৪ দলের একটি উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বিচারপতি মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে সাক্ষাত্ করে এ অভিমত পেশ করে৷ এ দলে অন্যদের মধ্যে ছিলেন রাশেদ খান মেনন, হাসানুল হক ইনু, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, দিলীপ বড়–য়া, পঙ্কজ ভট্টচার্য ও সাবেক সচিব এম মোকাম্মেল হক৷
সাক্ষাত্ শেষে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত সাংবাদিকদের বলেন, ইসির উচিত তাদের অক্ষমতার কথা প্রেসিডেন্টকে জানানো৷ সে ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট সংবিধানের ১০৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী একটি সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে নির্বাচনের সময়সীমা বাড়ানোর জন্য সুপৃম কোর্টের পরামর্শ চাইতে পারেন৷
বর্তমানে যে তালিকা রয়েছে এ তালিকা দিয়ে ভোট গ্রহণ হলে তা পরে বাতিল হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে জানান সুরঞ্জিত৷ তিনি বলেন, ইসি যে ভোটার তালিকা তৈরি করেছে তাতে আমাদের হিসাবে ১ কোটি ৬০ লাখ এবং আন্তর্জাতিক মহলের মতে ১ কোটি ২০ লাখ ভুয়া ভোটার রয়েছে৷ এখনো ৬০ লাখ লোক তালিকার বাইরে রয়েছেন৷ ইসি যে কায়দায় তালিকা তৈরি করেছে তাও আইনসিদ্ধ নয়৷ বিষয়টি আমরা ইসিকে ভোটার তালিকা অধ্যাদেশ ১৯৮২ ও ভোটার তালিকা বিধিমালা ১৯৮২ সংশ্লিষ্ট অনুচ্ছেদ ও ধারা খুলে দেখিয়েছি৷ ইসি কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি৷ ইসি লাল কালি দিয়ে ভোটারের নাম কেটেছে৷ কিন্তু নামের পাশে কারো স্বাক্ষর নেই৷ সুরঞ্জিত আরো বলেন, মাহফুজুর রহমানকে আমরা আরো বুঝিয়েছি, তিনি যে ভারপ্রাপ্ত সিইসির দায়িত্ব পালন করছেন সংবিধানে এ জাতীয় কোনো পদ নেই৷
সুরঞ্জিত জানান, ১৪ দলের দাবিগুলো ইসির বৈঠকে উত্থাপন করা হবে বলে ভারপ্রাপ্ত সিইসি তাদের আশ্বস্ত করেছেন৷ তিনি বলেন, আলোচনা শেষে ইসি তাদের মত আমাদের অবহিত করবেন বলে জানিয়েছেন৷
প্রায় দু’ঘণ্টার এ বৈঠকে ১৪ দল থেকে আরো অভিযোগ করা হয়েছে, দেশের সর্বত্র বেআইনিভাবে ভোট কেন্দ্র স্থানান্তর করা হয়েছে৷ প্রতিনিধি দল অনুরোধ জানিয়েছে, ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া ছাড়া কোনো ভোট কেন্দ্র যেন স্থানান্তর করা না হয়৷ স্থানান্তর করতে হলে সব দলের সঙ্গে পরামর্শ করতে হবে৷ এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য মাঠ পর্যায়ে যাতে দ্রুত চিঠি পাঠানো হয় সে জন্য ১৪ দল থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে৷ ভোট গ্রহণ কাজে বিতর্কিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের নিয়োগ না দেয়ার দাবিও করা হয়৷
১৪ দল আগামীকাল সোমবার মনোনয়নপত্র দাখিল করবে কি না জানতে চাইলে শেখ সেলিম বলেন, কিভাবে করবো৷ আমি জেলা নির্বাচন অফিসের কাছে এক সেট ভোটার তালিকা চেয়েছি৷ তারা দিতে পারেনি৷ এ অবস্থায় আমি মনোনয়নপত্রের প্রস্তাবক-সমর্থকের নাম পাবো কোথায়৷
১৪ দলের দাবি সম্পর্কে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় দফতর ত্যাগের আগে ভারপ্রাপ্ত সিইসি মাহফুজুর রহমান অপেক্ষমাণ সাংবাদিকদের বলেন, ১৪ দলের নেতারা এসেছিলেন৷ তারা সংবিধান এবং ভোটার তালিকা নিয়ে কথা বলেছেন৷ কাল এ নিয়ে আবারও আলোচনা হবে৷

সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=23743&issue=174&nav_id=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: