প্রশ্নোত্তর পর্বে মান্নান ভঁূইয়া ৪ দল সরকারে গেলে বিশুদ্ধ ভোটার তালিকা অগ্রাধিকার পাবে

বিএনপির নেতৃত্বে চারদলীয় জোট আগামীতে সরকার গঠন করলে বিশুদ্ধ ভোটার তালিকা ও ভোটার আইডি কার্ডকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়া৷ গতকাল শুক্রবার বিকালে হোটেল সোনারগাওয়ের বলরুমে চারদলীয় জোটের প্রেস কনফারেন্সের প্রশ্নোত্তর পর্বে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ প্রতিশ্রুতি দেন৷
চারদলীয় জোট নেত্রী এবং বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন৷ তার বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাব দেন মান্নান ভূঁইয়া৷ বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট সরকারের সাফল্য ও শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচি, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন জোটের অযৌক্তিক আন্দোলনের কড়া সমালোচনা, কেয়ারটেকার সরকারের করণীয় ইত্যাদি বিষয় উঠে আসে মান্নান ভূঁইয়ার বক্তব্যে৷ তবে ভোটার তালিকা ও ভোটার আইডি সম্পর্কে স্পষ্ট প্রতিশ্রুতি দেন তিনি৷
মান্নান ভূঁইয়া বলেন, নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ আমাদের জোটকে সরকার গঠনের সুযোগ দিলে শুরুতেই আমরা একটি বিশুদ্ধ ভোটার তালিকা ও ছবিযুক্ত ভোটার আইডি কার্ড প্রচলনের ব্যবস্থা করবো৷
গণতন্ত্রে জয়-পরাজয় দুটোই আছে বলে স্মরণ করিয়ে দিয়ে সব দলের প্রতি গণতান্ত্রিক আচরণের আহ্বান জানান তিনি৷ অবরোধের মতো সহিংস কর্মসূচি মোকাবেলায় বিএনপি ও তাদের জোট কোনো কর্মসূচি দেবে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, অবরোধের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার৷ আমরা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সরকারকে সমর্থন করবো৷
আওয়ামী লীগ ও তাদের সমমনা দলগুলোর অনুপস্থিতিতে চারদলীয় জোট সরকারের স্বরূপ কি হবে, প্রধান বিরোধী দলের ভূমিকায় কোন দল থাকবে এসব প্রশ্নও করা হয় গতকালের প্রেস কনফারেন্সে৷ মান্নান ভূঁইয়া এসব প্রশ্নের জবাবে বলেন, অপজিশন কে হবে এখনই তা বলা যাবে না৷ ওটা নির্বাচনের পরের প্রসঙ্গ৷
প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের তারিখ পেছানোর ব্যাপারে হাই কোর্টে কোনো রেফারেন্স পাঠালে বিএনপির প্রতিক্রিয়া কি হবে জানতে চাইলে মহাসচিব বলেন, প্রেসিডেন্ট কোর্টে রেফারেন্স পাঠাতে পারেন কোনো অস্পষ্ট ব্যাপারে৷ কিন্তু আলোচ্য বিষয়টি নিয়ে কোনো অস্পষ্টতা নেই৷ এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, সংবিধান মেনে ৯০ দিনের মধ্যেই নির্বাচন হতে হবে৷ আমরা নির্বাচনে যেতে চাইছি৷ কোনো কোনো দল নির্বাচনে না এলেও নির্বাচনী প্রক্রিয়া বন্ধ রাখা ঠিক হবে না বলে কেয়ারটেকার সরকারকে সতর্ক করে দেন তিনি৷
আওয়ামী লীগের কড়া সমালোচনা করে মান্নান ভূঁইয়া বলেন, আওয়ামী লীগের বক্তব্য শুনে মনে হয়, তাদের পক্ষে বললে নিরপেক্ষ, বিপক্ষে বললে নিরপেক্ষতা থাকে না৷ তারা পরিকল্পিতভাবে দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান ধ্বংস করার চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ তুলে মান্নান ভূঁইয়া বলেন, তারা বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করছে৷ তারা দেশকে অকার্যকর রাষ্ট্র প্রমাণ করার চেষ্টা করছে৷
সাবেক প্রেসিডেন্ট এরশাদের মামলা সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার বিচার আমাদের সময়ে চলেছে, এখনো চলছে৷ তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে৷
টিপাইমুখ বাধ প্রসঙ্গে মনোযোগ আকর্ষণ করা হলে মান্নান ভূঁইয়া জানান, আমরা টিপাইমুখ বাধ দেয়ার প্রতিবাদ জানিয়েছি৷ বাধ যাতে না হতে পারে সে ব্যাপারে ইনডিয়া সরকারের সঙ্গে আমরা আলোচনা করবো৷
প্রেস কনফারেন্সে জোট সরকারের শরিক দলগুলো ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির একাংশের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জু৷ তার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মান্নান ভূঁইয়া বলেন, আনোয়ার হোসেন মঞ্জু আমাদের কাছে তার নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি নিয়ে চারদলীয় জোটে শরিক হওয়ার স্টেটমেন্ট দিয়েছেন৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=24984&issue=184&nav_id=1

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: