ব্যাপক ধরপাকড় অব্যাহত মাঠে থাকছে সেনাবাহিনী কঠোর অবস্থানে পুলিশ

আজ রবিবার থেকে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাঐক্যজোটের ডাকা ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ কর্মসূচি শুরু হচ্ছে৷ অবরোধ চলাকালে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে রাজধানী জুড়ে শনিবার রাত থেকেই বিপুলসংখ্যক র‌্যাব, পুলিশ ও বিডিআর মোতায়েন করা হয়েছে৷ সাড়ে চার হাজার সেনা সদস্যও মোতায়েন থাকবে রাজধানীর বিভিন্ন স্পটে৷ এদিকে চলমান সন্ত্রাসী গ্রেফতার অভিযানের অংশ হিসেবে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ধরপাকড় অব্যাহত রয়েছে৷ গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীতে প্রায় এক হাজার জনকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে৷ আওয়ামী লীগ দাবি করেছে, অবরোধ ঠেকাতে পুলিশ আগের মতো ১৪ দলের নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার শুরু করেছে৷ তবে পুলিশ বলছে, গণগ্রেফতার নয়, চলমান অভিযানের অংশ হিসেবেই অপরাধীদের ধরা হচ্ছে৷
অন্যদিকে ঢাকা মহানগর পুলিশ গতকাল এক বিজ্ঞপ্তিতে লাঠি-লগি-বৈঠা নিয়ে সব ধরনের মিছিল-সমাবেশ নিষিদ্ধ করেছে৷ ঢাকা মেট্রপলিটান পুলিশ কমিশনার
এ বি এম বজলুর রহমান গতকাল সব জোনের ডিসি ও থানার ওসিদের সঙ্গে বৈঠক করে যে কোনো ধরনের পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশকে প্রস্তুত থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন৷ শুধু তাই নয়, পুলিশ কোনো অঘটন ঘটালে তার দায়দায়িত্বও তিনি নেবেন বলে ওসিদের জানিয়ে দিয়েছেন৷ অন্যদিকে অবরোধের সময় যানবাহন চলাচল ও পণ্য পরিবহনে পুলিশি নিরাপত্তা দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বৈঠকে৷
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, অবরোধের প্রধান ২৯টি স্পট পুলিশ ব্যারিকেডের মধ্যে রাখার চেষ্টা করবে৷ কোনো ধরনের সভা-সমাবেশ বা রাজপথ আটকে সমাবেশ, বিক্ষোভ মিছিল করতে না দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশ৷ একই সঙ্গে গণগ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে৷
ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, ৪৮ ঘণ্টার অবরোধ চলাকালে রাজধানীতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ২৫ হাজারের মতো সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে৷ এর মধ্যে পুলিশ ১২ হাজার, র‌্যাব ৫ হাজার, বিডিআর ১ হাজার ৪০০, আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন ২ হাজার, আনসার সদস্য ৪০০ এবং সেনাবাহিনীর সাড়ে ৪ হাজার সদস্য দায়িত্ব পালন করবেন৷ প্রাথমিকভাবে সেনা সদস্যরা রাজপথে টহলে থাকবেন৷ তবে কোথাও সংঘর্ষ বাধলে তা ঠেকাতে তারা কাজ করবেন৷
পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার গতকাল শনিবার ডিবি ও ৩৩ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের (ওসি) নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন৷ তিনি অবরোধ কর্মসূচি কঠোরভাবে মোকাবেলা করার নির্দেশ দেন৷ অবরোধকারীদের মোকাবেলা করতে গিয়ে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটলে তার দায়দায়িত্ব পুলিশ কমিশনার নিজে নেবেন বলেও ওসিদের আশ্বস্ত করেন৷ একজন ওসি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে পুলিশ বাহিনী সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েই মাঠে নামবে৷ গত রাত ৮টা থেকে তিন হাজার পুলিশ ও অন্যান্য বাহিনীর সদস্যদের মাঠে নামানো হয়েছে৷ আজ সকাল ৬টায় অন্য সদস্যরা মাঠে নামবেন৷
ঢাকা মেট্রপলিটান পুলিশ কমিশনার এ বি এম বজলুর রহমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আজ ও আগামীকালের অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে সব ধরনের লাঠি-লগি-বৈঠা-কাস্তে নিয়ে সভা-সমাবেশে অংশগ্রহণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন৷ জনসাধারণের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয় এমন সব সভা-সমাবেশ ও কর্মসূচির ওপর তিনি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেন৷ গত রাত ১টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা বলবত থাকবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়৷

সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=25093&issue=185&nav_id=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: