পল্টনের জনসভায় ভোটার ও ভোট কর্মকর্তাদের প্রতি শেখ হাসিনা ২২ জানুয়ারি ভোট কেন্দ্রে গেলে গণদুশমন হিসেবে চিহ্নিত হবেন

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও মহাজোট নেত্রী শেখ হাসিনা ভোটারদের প্রতি আগামী ২২ জানুয়ারি ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, প্রহসনের নির্বাচনে ভোট কেন্দ্রে গেলে গণদুশমন হিসেবে চিহ্নিত করা হবে, প্রতিরোধ করা হবে৷
তিনি রিটার্নিং অফিসার, পৃসাইডিং অফিসার, পোলিং অফিসারসহ সবস্তরের ভোট গ্রহণ কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং প্রার্থীদের প্রতিও ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার আহ্বান জানান৷ তিনি বলেন, নির্বাচনী কাজে অংশ নিলে জনগণ লাঠি-বৈঠা নিয়ে আপনাদের ঘেরাও করবে, প্রতিহত করবে৷
গতকাল বুধবার শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে পল্টন ময়দানে মহাজোট আয়োজিত এক জনসভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন৷ জনসভায় শেখ হাসিনা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের প্রতি বলেন, নেতাদের ওপর, জনগণের ওপর আক্রমণ করবেন না৷ চোরদের পক্ষ নিয়ে গণদুশমনে পরিণত হবেন না৷ এর পরিণতি ভালো হবে না৷ যারা হামলা করছে, তাদের আমরা হিসাবে রাখবো, তাদের ছবি সংগ্রহ করা হবে৷ এক মাঘে শীত যায় না৷
তিনি আরো বলেন, প্রফেসর ইয়াজউদ্দিন নেতাদের ওপর পুলিশ লেলিয়ে দিয়েছেন৷ মেয়েদের ওপর নির্মম অত্যাচার করা হচ্ছে৷ গত পাচ বছর বিএনপির আমলে অত্যাচার-নির্যাতন হয়েছে৷ কিন্তু তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে এ ধরনের ঘটনা ঘটবে, তা আমরা আশা করিনি৷
শেখ হাসিনা বলেন, সংবিধান লঙ্ঘন করে প্রফেসর ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ প্রধান উপদেষ্টা হয়েছেন৷ এরপর তিনি পদে পদে সংবিধান লঙ্ঘন এবং চোরদের ক্ষমতায় বসানোর জন্য ষড়যন্ত্র করে চলেছেন৷ শিক্ষক হিসেবে ড. ইয়াজউদ্দিন ন্যায়নীতির পক্ষে থাকবেন বলে মনে করেছিলাম৷ কিন্তু এখন মনে হচ্ছে, তার কোনো বোধশক্তি নেই৷ হাওয়া ভবন যা হুকুম করে, তিনি তা বাস্তবায়ন করেন৷ তিনি পরিণত হয়েছেন হুকুমের গোলামে৷ তিনি শিক্ষক সমাজেরও কলঙ্ক৷
তিনি বলেন, নির্বাচনের পর নির্বাচন কমিশন ও হাওয়া ভবন কেউই প্রফেসর ইয়াজউদ্দিনের দায়িত্ব নেবে না৷ ইতিমধ্যে নির্বাচন কমিশন বলে দিয়েছে, নির্বাচনের সময় গণ্ডগোল হলে দায়দায়িত্ব প্রফেসর ইয়াজউদ্দিনকে নিতে হবে৷ চোরদের ক্ষমতায় বসানোর পর তারাও দায়িত্ব নেবে না৷ প্রেসিডেন্টকে এটা বুঝে চলা উচিত৷
জনসভায় আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, একতরফা নির্বাচন বিশ্বের কোনো দেশের কাছে গ্রহণযোগ্য হবে না৷ ইতিমধ্যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় এই একদলীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষণ করবে না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ বাংলার মাটিতে একতরফা নির্বাচন করতে দেয়া হবে না৷ যে কোনো মূল্যে একতরফা নির্বাচন প্রতিহত করা হবে৷
২০০১ সালে ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন সংক্রান্ত শেখ হাসিনার আগের বক্তব্য সম্পর্কে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বলেন, তখন নির্বাচন কমিশন ছিল স্বাধীন৷ ২০০০ সালে ভোটার তালিকা তৈরি সম্পন্ন হয়েছিল৷ নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ ছিল৷ তা না হলে তারা তখন প্রতিবাদ করতো৷ কিন্তু এখন পরিস্থিতি ভিন্ন৷ নির্বাচনের আর ১২ দিন বাকি৷ কিন্তু এখনো ভোটার তালিকাই তৈরি হয়নি৷
শেখ হাসিনা বলেন, আমরা নির্বাচনে অংশ নেয়ার চেষ্টা করেছি৷ প্রার্থিতাও দিয়েছি৷ কিন্তু যতো পা বাড়িয়েছি, দেখেছি বিশাল বিশাল গর্ত৷ ভোটার তালিকা থেকে নাম বাদ দেয়া হয়েছে৷ ক্রস দিয়ে তালিকা ধরে নাম বাদ দেয়া হয়েছে, এমনকি প্রার্থীদেরও মৃত হিসেবে দেখানো হয়েছে৷ দলীয় ক্যাডারদের নির্বাচনী কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে৷ এসব দেখে মনে হচ্ছে, রেজাল্ট তৈরি আছে৷ নির্বাচনী খেলার মাধ্যমে তারা তৈরি রেজাল্ট প্রকাশ করতে চায়৷ এ পরিস্থিততে জনগণের ভোটের অধিকার রক্ষায় নির্বাচন বর্জন ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না৷
তিনি আরো বলেন, ক্ষমতায় থাকাকালে বিএনপি দুর্নীতিকে নীতি হিসেবে গ্রহণ করেছিল৷ শুধু জিনিসপত্রের দাম বাড়িয়েই তারা দুই লাখ ৮৬ হাজার কোটি টাকা লুট করেছে৷ তার মতে, ক্ষমতায় না থাকলে মানুষ ওদের ছাড়বে না, দুর্নীতির দায়ে শাস্তি ভোগ করতে হবে- এ জন্য বিএনপি ক্ষমতায় যেতে মরিয়া হয়ে উঠেছে৷ ভোট চুরি করে ক্ষমতায় যেতে চাচ্ছে৷
আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমরা নির্বাচনে যেতে চাই৷ তবে প্রফেসর ইয়াজউদ্দিনকে দিয়ে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না৷ প্রধান উপদেষ্টার পদ থেকে তাকে পদত্যাগ করতে হবে৷ নতুন প্রধান উপদেষ্টা নিয়োগ দিতে হবে, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে, ভোটার আইডি কার্ড দিতে হবে, স্বচ্ছ ব্যালট বক্স ব্যবহার করতে হবে, দলীয় কর্মকর্তাদের প্রত্যাহার করতে হবে, নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে৷ তিনি গণতন্ত্র ও ভোটের অধিকার রক্ষায় আন্দোলন-সংগ্রাম অব্যাহত রাখতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=25564&issue=189&nav_id=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: