জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা শেষে অ্যাডভাইজররা বললেন রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করেই ইসি পুনর্গঠন

মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানালো কেয়ারটেকার সরকারের নতুন ক্যাবিনেট৷ চিফ অ্যাডভাইজর ড. ফখরুদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন অ্যাডভাইজরি কাউন্সিলের নবনিযুক্ত ১০ জন গতকাল শুক্রবার বিকালে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে জাতির বীর সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান৷  এরপর সেখানেই সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে কয়েকজন অ্যাডভাইজর বলেন, একটি সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের পরই দায়িত্ব থেকে বিদায় নেবে বর্তমান কেয়ারটেকার সরকার৷ প্রয়োজনীয় পূর্বশর্ত পূরণের মাধ্যমে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য যতোদিন দায়িত্বে থাকা প্রয়োজন হবে ততোদিনই এ সরকার ক্ষমতায় থাকবে বলেও মন্তব্য করেন তারা৷
মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি অ্যাডভাইজরদের শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের পূর্বনির্ধারিত সময় ছিল বিকাল ৪টা৷ কিন্তু গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা অ্যাডভাইজর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন সেখানে গিয়ে পৌছান বিকাল সোয়া ৩টায়৷ জাতীয় স্মৃতিসৌধ রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পূর্ত মন্ত্রণালয়ের৷ এরপর অন্য অ্যাডভাইজররা আসেন একে একে৷ বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে তারা একসঙ্গে শহীদ বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন৷ এরপর তারা মন্তব্য লিখে সই করেন পরিদর্শন বইতে৷

অ্যাডভাইজর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, ড. এ বি মির্জা আজিজুল ইসলাম, মেজর জেনারেল (অব.) মতিউর রহমান, মেজর জেনারেল (অব.) এম এ মতিন, আইয়ুব কাদরী, ড. সি এস করিম, ড. ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী, আনোয়ারুল ইকবাল, গীতিআরা সাফিয়া চৌধুরী ও তপন চৌধুরী প্রায় একই সময়ে স্মৃতিসৌধ আঙিনা ত্যাগ করেন৷
স্মৃতিসৌধ ত্যাগের আগে উপস্থিত সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন অ্যাডভাইজর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, ইফতেখার আহমেদ চৌধুরী, গীতিআরা সাফিয়া চৌধুরী ও তপন চৌধুরী৷ এ সময় তারা বলেন, বর্তমান কেয়ারটেকার সরকারের প্রধান কাজ হলো একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন সম্পন্ন করে দিয়ে যাওয়া৷ আমরা ইতিমধ্যেই সেই লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছি৷ তারা বলেন, একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য সুষ্ঠু ভোটার তালিকা খুবই জরুরি৷ রাজনৈতিক দলগুলোর দাবি অনুযায়ী আমরা যেমন সঠিক ভোটার তালিকা তৈরিতে নির্বাচন কমিশনকে সহায়তা দেবো, তেমনি জনগণের চাহিদা অনুযায়ী প্রত্যেক ভোটারকে পরিচয়পত্র বা আইডি কার্ড দেয়ারও ব্যবস্থা নেয়া হবে৷ এছাড়া স্বচ্ছ ব্যালট বক্সের দাবিও রয়েছে৷ তবে এসব কিছুর আগে নির্বাচন কমিশনে প্রয়োজনীয় সংস্কার সাধন করা হবে এবং বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গেও আলোচনা করা হবে৷
অ্যাডভাইজররা আরো বলেন, প্রয়োজনীয় সব পূর্বশর্ত পূরণের পর আমরা একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা করবো৷ এরপর নির্বাচিত সরকারের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করে বিদায় নেবে বর্তমান সরকার৷
অ্যাডভাইজর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, বিচার বিভাগ আলাদা করার দ্রুত পদক্ষেপ নিয়ে এ সরকার এরই মধ্যে সদিচ্ছার প্রমাণ দিয়েছে৷ এ ব্যাপারে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের কাছ থেকে বিপুল সাড়াও মিলছে বলে তিনি মন্তব্য করেন৷
গণপূর্ত অধিদফতরের চিফ ইঞ্জিনিয়ারসহ সংশ্লিষ্ট অফিসাররাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্মৃতিসৌধে৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=26583&issue=198&nav_id=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: