দুর্র্নীতি দমন কমিশনাররা আজ পদত্যাগ করতে পারেন সংস্কারের জন্য সময় চেয়ে চিঠি দিয়েছেন মনিরউদ্দিন

দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ও অন্য দুই কমিশনার আজ পদত্যাগ করতে পারেন৷ গতকাল সোমবার কমিশনের চেয়ারম্যান জাস্টিস সুলতান হোসেন খান বলেছেন, মঙ্গলবারের মধ্যেই জানা যাবে, তিনি পদত্যাগ করছেন কি না৷ অন্য দুই কমিশনারের পদত্যাগের বিষয়ও আজকালের মধ্যে নিশ্চিত হওয়া যেতে পারে৷ জাস্টিস সুলতান গতকালও আগের দিনের মতো জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করতে বললে পদ আকড়ে ধরে থাকার কোনো ইচ্ছা তার নেই৷ তবে বঙ্গভবন থেকে এখনো কোনো কিছু জানানো হয়নি বলে উল্লেখ করেন তিনি৷
কেয়ারটেকার সরকারের অ্যাডভাইজর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রধান করে স্বাধীন দুর্নীতি দমন কমিশন সংস্কার সংক্রান্ত পুনর্গঠন কমিটি গত রবিবার এক বৈঠকে দু’একদিনের মধ্যেই কমিশন পুনর্গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ এ বিষয়ে জানতে চাইলে জাস্টিস সুলতান হোসেন খান বলেন, প্রেসিডেন্ট বললে দেশ ও জাতির স্বার্থে পদত্যাগ করবো৷
নিজে থেকে কেন চলে যাচ্ছেন না- এ প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, এভাবে গেলে তো ব্যর্থতার সব দায় আমাদের বলেই প্রমাণিত হয়৷ ৪৫ দিনের মধ্যে চার্জশিট তৈরি ও দাখিল এবং ৬০ দিনের মধ্যে বিচার শেষ করার বিষয়ে যেসব উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে সেগুলো ভালো উদ্যোগ বলে উল্লেখ করেন জাস্টিস সুলতান৷ তিনি বলেন, এর ফলে দেশ থেকে দুর্নীতি দূর হবে৷ এ বিষয়ে সব রকম সহযোগিতা কমিশন করবে বলে জানান তিনি৷
এদিকে কমিশন আইন সংস্কার, নিয়োগ বিধিমালাসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ প্রস্তাবনার বিষয়ে গতকাল সোমবার কমিশনের বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা থাকলেও বৈঠকটিই অনুষ্ঠিত হয়নি৷ কমিশনার মনিরউদ্দিন আহমেদ উপস্থিত না থাকায় এটি করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছেন চেয়ারম্যান৷
তবে কমিশনের সেগুনবাগিচা অফিসে কমিশনার মনিরউদ্দিন আহমেদের সঙ্গে এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে তিনি দাবি করেন, বৈঠক সম্পর্কে তাকে কিছুই জানানো হয়নি৷ পদত্যাগ বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইলে এ প্রসঙ্গে তিনি কিছু জানাতে রাজি হননি৷ তিনি বলেন, আমাকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু না জানানো হলে এ নিয়ে আমি কোনো কথা বলতে পারি না৷ প্রেসিডেন্ট পদত্যাগ করতে বললে করবেন কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, এ বিষয়ে কিছু বলতে পারি না৷
এদিকে গত ২৯ জানুয়ারি তিন কমিশনারকে নিয়ে উপদেষ্টা মেজর জেনারেল আবদুল মতিনের মন্তব্যের প্রতিবাদে কমিশনার মনিরউদ্দিন আহমেদ নিজে থেকে চিফ অ্যাডভাইজরের কাছে একটি চিঠি পাঠিয়েছেন বলে জানা গেছে৷ এতে জেনারেল মতিনের মন্তব্যকে মানহানিকর বলে উল্লেখ করা হয়েছে৷ এছাড়া কমিশনের আইনি সীমাবদ্ধতাসহ নানা প্রতিবন্ধকতার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে৷ চিঠিতে দাবি করা হয়েছে, বিধিমালা না থাকা সত্ত্বেও নানা প্রতিকূলতা অতিক্রম করে আকিজ গ্রুপের বিরুদ্ধে ৩০০ কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগের বিষয়ে চার্জশিট দেয়া হয়েছিল৷ এ বিষয়ে হাই কোর্ট বিভাগের শুনানিও হয়েছিল৷ কিন্তু পরে বহু চেষ্টা করেও এর কাগজপত্র আদালত থেকে হাতে এসে পৌছায়নি৷
এসব বিষয়ে কমিশনার মনিরউদ্দিন আহমেদ জানান, কমিশনের ভেতরে ও বাইরে অনেক সমস্যা আছে৷ বেশ কিছু প্রতিবন্ধকতা থাকার কারণে জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী কাজ করতে পারিনি৷ এসব প্রতিকূলতা দূর করার জন্য সময় চেয়ে চিফ অ্যাডভাইজরের কাছে আবেদন করেছি৷
সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/view_news.php?News-ID=28450&issue=214&nav_id=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: