কারাগারে নেতারা মিলেমিশে একাকার | ভুলে গেছেন বিএনপি-আওয়ামী লীগ সাপে নেউলে সম্পর্ক

যৌথবাহিনীর হাতে গ্রেপ্তারের পর এক মাসের ডিটেনশনে কারাবন্দী বিএনপি ও আওয়ামী লীগের ১৯ নেতা ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে মিলেমিশে রয়েছেন। যেন তারা ভুলে গেছেন রাজনৈতিক বিরোধ। এদের মধ্যে সাবেক মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, উপমন্ত্রী, সাবেক সাংসদ ও রাজনৈতিক নেতা ১৩ জনকে প্রথম শ্রেণীর বন্দীর মর্যাদা (ডিভিশন) দেওয়া হয়েছে। এই ১৩ জন কারাগারের কর্ণফুলী এলাকায় একসঙ্গে রয়েছেন। অপর ৬ জন একসঙ্গে রয়েছেন কারাগারের বকুল সেলে (পুরোনো ৭ সেল)। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক কারারক্ষী জানিয়েছেন, এসব নেতা কারাগারে দৃশ্যত ফুরফুরে মেজাজে থাকলেও দুশ্চিনত্মা তাদের মাথায় ভর করেছে। তাদের চোখেমুখে বিষণ্নতার ছাপ রয়েছে।
সূত্র মতে, কারাগারে তাদের প্রথম দিন কেটেছে গল্পগুজব আর নির্দিষ্ট গণ্ডির ভেতর হাঁটাচলা করে। বিকালে অনেকে বাগানে হাঁটাচলা করেছেন। প্রসঙ্গতঃ গত সোমবার সন্ধ্যায় দুই দলের ১৭ শীর্ষ নেতাসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী ডিকনকে একসঙ্গে কারাগারে পাঠানো হয়। গতকাল মঙ্গলবার কারাগারে পাঠানো হয় সাবেক সাংসদ
মোসাদ্দেক আলী ফালুকে। এদের মধ্যে সাবেক প্রতিমন্ত্রী মীর নাছির ও সাবেক সাংসদ ফালুর কারাবাসের পূর্ব অভিজ্ঞতা না থাকলেও অন্য সবার রয়েছে সেই অভিজ্ঞতা।
কারা সূত্র নিশ্চিত করে জানায়, গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ও বিএনপির ভাইস প্রেসিডেন্ট ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সংসদ বিষয়ক উপদেষ্টা, সাবেক সাংসদ সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী, সাবেক বিমান প্রতিমন্ত্রী মীর নাছির উদ্দিন, সাবেক শ্রম প্রতিমন্ত্রী আমান উল্লাহ আমান, সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, সাবেক অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের পুত্র সাবেক সাংসদ নাসের রহমান, মঞ্জুর”ল আহসান মুন্সী, মোসাদ্দেক আলী ফালু, সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ নাসিম, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ডক্টর মহীউদ্দীন খান আলমগীর, আওয়ামী লীগ নেতা, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি বিশিষ্ট শিল্পপতি সালমান এফ রহমান ও শিল্পপতি লোটাস কামালকে ডিভিশনে একসঙ্গে রাখা হয়েছে। পুরোনো ডিভিশন সেল-এর সঙ্গে ২৬ ও ২৭ সেলকে সমন্বিত করে নতুন ডিভিশন সেল গঠন করে কারা কর্তৃপক্ষ এর নাম দিয়েছে ‘কর্ণফুলী’। এখানেই রাখা হয়েছে ডিভিশন বন্দীদের।
অপরদিকে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার এপিএস ড. আওলাদ হোসেন, শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত সহকারী মাহমুদ হাসান বাবুল, সাবেক ছাত্রনেতা জাহাঙ্গীর সাত্তার টিংকু, তার ব্যবসায়িক পার্টনার স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ, টিংকুর অফিস স্টাফ হাসান ও শীর্ষ সন্ত্রাসী ডিকনকে একসঙ্গে রাখা হয়েছে কারাগারের পুরোনো ৭ সেলে (বর্তমানে বকুল সেল)। গতকাল পর্যনত্ম এদের কাউকে ডিভিশন দেওয়া হয়নি। যারা ডিভিশনে রয়েছেন তারা কয়েকটি দৈনিক সংবাদপত্র, একটি করে রেডিও এবং থাকা খাওয়ার ব্যাপারে জেল কোড অনুযায়ী সুবিধা পাবেন বলে জানা গেছে।সূত্র আরো জানায়, কারাবন্দী নেতারা রাজনৈতিক বিরোধ ভুলে একসঙ্গে রয়েছেন। গতকাল গল্পগুজব করেই তাদের সময় কেটেছে। সন্ধ্যায় সাবেক সাংসদ ফালু ডিভিশন সেলে পৌঁছলে সবাই তাকে হাসিমুখে স্বাগত জানান। সাধারণ কয়েদিদের তাদের কাছে ভিড়তে দেওয়া না হলেও বিএনপি এবং আওয়ামী লীগের কারাবন্দী অনেক নেতাই এই নেতাদের সঙ্গে দেখা করেছেন। এর মধ্যে ডিটেনশনে কারা হাসপাতালে থাকা সাবেক সাংসদ কামাল আহম্মেদ মজুমদার এবং সেলে থাকা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন গতকাল কারাগারে আওয়ামী লীগ নেতাদের খোঁজখবর নিয়েছেন। সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমের পূর্ব পরিচিত, কারাগারের ৩ খাদার বন্দী অবনী গতকাল তার দেখভাল করেছেন।
ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সুপার মঞ্জুর”ল করীম ভোরের কাগজকে বলেন, রাজনৈতিক নেতাসহ যে ১৯ জনকে ডিটেনশন দেওয়া হয়েছে তারা কারা অভ্যনত্মরে একসঙ্গে থাকলেও বাইরের কারো সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে তাদেরকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমতি নিতে হবে।
কারা সূত্র জানায়, শীর্ষ রাজনৈতিক নেতাদের নিয়ে কয়েদি, হাজতি এবং কারারক্ষীদের মধ্যে কৌতূহলের কমতি নেই। বন্দীরা তাদেরকে কাছে থেকে একনজর দেখতে নানা চেষ্টা চালিয়েছেন। কারাগারে এখন তারাই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছেন।
সূত্র জানায়, কারাগারের ৯০ সেলের কাছেই ডিভিশন সেল। পাশেই রয়েছে জেল স্কুল এবং লাইব্রেরি। ডিভিশনে ১২ জন ও ৭ সেলে ৬ জন রাজনৈতিক নেতা একসঙ্গে রয়েছেন। তাদের সবার মধ্যেই সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছে।
Source:ভোরের কাগজ
Date:2007-02-07

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: