রোকেয়া সরণিতে তিনশ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানে গতকাল মিরপুরের রোকেয়া সরণিতে ভাঙা পড়েছে ১৩ তলা আল হেলাল স্পেশালাইজড হসপিটালের নকশা বহির্ভূত দুটি ফ্লোর৷ এছাড়া মিরপুর ১০ নাম্বার গোলচত্বর থেকে রোকেয়া সরণি পর্যন্ত তিন শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে যৌথ বাহিনী৷ এ উচ্ছেদ অভিযানের এক পর্যায়ে অভিযানকারীদের ওপর হামলা চালায় বিক্ষুব্ধ জনতা৷ তারা অভিযানে ব্যবহৃত কয়েকটি গাড়ির সামনের কাচ ভেঙে দেয়৷ কাফরুল থানা পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে৷
গতকাল সকালে মিরপুর ১০ নাম্বার থেকে সড়কের পূর্ব পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে নামে রাজউক৷ এ সময় গণপূর্ত অধিদফতরের ম্যাজিস্ট্রেট মাহফুজুর রহমান দায়িত্ব পালন করছিলেন৷ শুরুতে মিরপুর থানা পুলিশ দুই প্লাটুন সদস্য নিয়ে অভিযান চালালেও পরে উচ্ছেদ এলাকা কাফরুলে চলে এলে সমন্বয়হীনতা দেখা দেয়৷ যৌথ বাহিনী তখনো অভিযানস্থলে এসে পৌছেনি৷ এর মধ্যে রোকেয়া সরণির ১৩ তলা আল হেলাল স্পেশালাইজড হসপিটালের নকশা বহির্ভূত দুটি ফ্লোর ভেঙে দেয়া হয়৷ জানা গেছে, হসপিটাল কর্তৃপক্ষ ১১ তলার অনুমোদন নিয়ে ১৩ তলা ভবন নির্মাণ করে

ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিল৷ রাজউক কর্মকর্তারা গতকাল এ হসপিটাল ভবনের নকশা বহির্ভূত দুটি ফ্লোর ভেঙে ফেলে৷ তারা আল হেলালের বেইজমেন্টের পার্কিং এলাকাও ফাকা করে দেয়৷ এছাড়া এ সড়কের বিভিন্ন অংশে অবৈধ দোকান, গারাজসহ বিভিন্ন অননুমোদিত স্থাপনা উচ্ছেদ করে৷
উচ্ছেদ অভিযানের কারণে রোকেয়া সরণিতে গতকাল সারা দিন যানজট লেগে থাকে৷ এক পর্যায়ে কাফরুল থানা এলাকায় উচ্ছেদে ক্ষতিগ্রস্ত কিছু লোক অভিযান-কারীদের ওপর হামলা চালায়৷ এ সময় কর্তব্যরত পুলিশের সমন্বয়হীনতার অভিযোগ পাওয়া গেছে৷ পরে গুলশানে উচ্ছেদ অভিযানে থাকা রাজউকের ম্যাজিস্ট্রেট আ স ম ইমদাদুল দস্তগীর রোকেয়া সরণির অভিযানে যোগ দেন৷ তিনি গত রাতে যায়যায়দিনকে বলেন, রোকেয়া সরণির অভিযানে আমরা বেশ সাড়া পেয়েছি৷ অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের সময় অনেকে নিজেদের উদ্যোগে তাদের স্থাপনা সরিয়ে নিয়েছে৷ তিনি বলেন, আমরা সব সময় রিজার্ভ ফোর্স নিয়ে অভিযানে যাই৷ পরে সংশ্লিষ্ট থানা এলাকার পুলিশ এতে যোগ দেয়৷
এদিকে বৃহস্পতিবার গুলশানে র‌্যাংগসের দখলে থাকা রাজউকের প্রায় ৪০০ কোটি টাকার জমি উদ্ধারের পর গতকাল এর পার্শ্ববর্তী আরো কিছু স্থাপনা উচ্ছেদ করে রাজউক৷ এরপর তারা এলাকাটি ঘিরে বেড়া দিয়ে নোটিশ ঝুলিয়ে দেয়৷ রাজউকের ম্যাজিস্ট্রেট আ স ম ইমদাদুল দস্তগীর বলেন, রোকেয়া সরণি এবং গুলশানের উচ্ছেদ দুটি বেশ বড় ঘটনা৷ গতকাল আমরা র‌্যাংগসের দখলে থাকা জায়গাটির পুরোটা দখলে নিলাম৷ Source:দৈনিক যায়যায়দিন
Date:2007-02-11

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: