এনটিভি ও আরটিভির কর্মীরা কান্নায় ভেঙে পড়লেন

ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে এনটিভি, আরটিভি আর দৈনিক আমার দেশসহ ভবনটি যখন চোখের সামনে পুড়ছিল দাউদাউ করে, ওই ভবনের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তখন তাদের আবেগ চেপে রাখতে পারেননি। এতদিন সংবাদ মাধ্যমের যেসব সাংবাদিক বিভিন্ন অগ্নিকাণ্ডের খবর কাভার করতে ছুটে গেছেন অকুস্থলে, সোমবার তারাই অশ্রুসজল চোখে নির্বাক তাকিয়ে দেখছিলেন অগ্নিকাণ্ডের বিভীষিকা। এদের মধ্যে ছিলেন আগুন লাগার পর উদ্ধার পাওয়া এনটিভির নিউজরুম এডিটর ফাহমিদা মাহবুব, সামিয়া রহমান, সুপন রায় ও এটিএন এর জ ই মামুনসহ আরও অনেকেই। তাদের চোখে ছিল পানি। অনেকেই ফুঁপিয়ে কাঁদছিলেন।
হাউমাউ করে কান্নায় ভেঙে পড়েন ব্যবস্থাপনা পরিচালক এনায়েতুর রহমান বাপ্পী। সবার অক্লান- পরিশ্রমে তিল তিল করে গড়ে ওঠা প্রতিষ্ঠান দুটোকে এভাবে চোখের সামনে পুড়ে যেতে দেখে নিজেকে সংযত রাখতে পারেননি তিনি। কান্নায় ভেঙে পড়ে বলতে থাকেন, ‘এভরিথিং ইজ ফিনিশড’। তিনি বলেন, প্রতিষ্ঠান দুটি আমার সন-ানের মতো। সন্ধ্যায় তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, অনির্দিষ্টকালের জন্য এ দুটি চ্যানেলের প্রচার বন্ধ থাকবে। এনায়েতুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ভবনটিকে রক্ষায় সেনা, র‌্যাব, ফায়ার ব্রিগেড, পুলিশসহ সবাই যথাসাধ্য চেষ্টা করেছেন। এজন্য তাদের ধন্যবাদ। তিনি জানান, সিস্টেমে কোথাও সামান্য ধুলাবালি জমলেও অনেক সময় যান্ত্রিক সমস্যা দেখা দেয়। আগুনের তীব্রতা কমার পর জিএম বিলাল সামি স্টেশন দুটি দেখে এসে তাকে জানিয়েছেন, সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। সন্ধ্যায় তিনি নিজে প্রতিষ্ঠান ঘুরে এসে জানান, আগুন, পানি, তাপ ও ধোঁয়ায় সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। Source:দৈনিক যুগান্তর
Date:2007-02-27

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: