মহাখালী সাততলা বস্তি উচ্ছেদ : নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে আহত ১০

রাজধানীর গুলশানে উচ্ছেদ অভিযান চলাকালে গতকাল মঙ্গলবার নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে প্রাইভেট নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির ছাত্রছাত্রীদের সংঘর্ষ হয়৷ সংঘর্ষে কমপক্ষে ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে৷ রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (রাজউক) অভিযানকারী দল গত সোমবার নর্থ-সাউথ ভবনের অননুমোদিত অংশ ভাঙার সময় এ সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়৷
এদিকে গতকাল মঙ্গলবার মহাখালীর সাততলা বস্তি উচ্ছেদ করেছে ঢাকা সিটি করপোরেশন৷ বহুল আলোচিত এ বস্তি বিভিন্ন অসামাজিক কর্মকাণ্ডের আখড়া হিসেবে পরিচিত৷ আদালতের নিষেধাজ্ঞার কারণে এর আগে একাধিকবার উদ্যোগ নিয়েও বস্তিটি উচ্ছেদ করা যায়নি৷ এছাড়া সিটি করপোরেশন রাজধানীর সূত্রাপুর ও দয়াগঞ্জে দিনভর উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে৷ এ সময় রাস্তার দুই পাশের অবৈধ স্থাপনা, অবৈধ বিল বোর্ড, সাইন বোর্ড গুড়িয়ে দেয়া হয়৷
ম্যাজিস্ট্রেট আ স ম ইমদাদুদ দস্তগীরের নেতৃত্বে রাজউকের দল সোমবার সকাল থেকে গুলশানে বেশ কয়েকটি বহুতল ভবনের অবৈধ অংশ ভাঙার পর বিকাল ৫টায় নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটি ভবনের বেজমেন্টে অননুমোদিতভাবে গড়ে তোলা স্থাপনা ভাঙতে যায়৷
এ সময় ইউনিভার্সিটির প্রক্টরসহ কয়েকজন শিক্ষক স্থাপনা অপসারণের জন্য রাজউক কর্মকর্তাদের কাছে সাত দিন সময় চান৷ কিন্তু রাজউক স্থাপনা ভাঙা শুরু করে৷ এ সময় শতাধিক শিক্ষার্থী নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সেনা ও পুলিশ সদস্যরা এ সময় তাদের লাঠিপেটা করে৷
নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশি অভিযানের পরিবর্তিত পরিস্থিততে কর্তৃপক্ষ সব ক্লাস ও পরীক্ষা আজ বুধবার পর্যন্ত স্থগিত করেছে৷
রাজউকের ম্যাজিস্ট্রেট আ স ম ইমদাদুদ দস্তগীর জানান, নর্থ-সাউথ ইউনিভার্সিটির অবৈধ স্থাপনা ভাঙার সময় শিক্ষার্থীদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিয়েছিল৷ তবে কোনো সংঘর্ষ হয়নি৷
এর আগে রাজউক সকাল ১০টায় গুলশান এক নাম্বার ও ১৭ নাম্বার সড়কের দু’পাশের অবৈধ স্থাপনা ভাঙার কাজ শুরু করে৷ সেনাবাহিনী ও পুলিশসহ নিরাপত্তা বাহিনীর শতাধিক সদস্য নিয়ে অভিযানকারী দল ১৭ নাম্বার সড়কের বহুতল সেরিনা হোটেল, ইকবাল টাওয়ার এবং মিড টাওয়ারসহ কমপক্ষে ১০টি বহুতল ভবনের অবৈধ অংশ বুলডজার দিয়ে গুড়িয়ে দেয়৷ এছাড়া ১৭ নাম্বার সড়কের মাথায় ডিসিসি মার্কেটের বিপরীতে রাজউকের প্রায় ১০ কাঠা জমি দখল করে অবৈধভাবে গড়ে তোলা ১২টি আধাপাকা টিনশেড দোকান ভেঙে দেয়া হয়৷
এদিকে গতকাল মঙ্গলবার রাজউক পুলিশের অভাবে পূর্ব ঘোষণা সত্ত্বেও গুলশানে উচ্ছেদ অভিযান চালাতে পারেনি৷ ম্যাজিস্ট্রেট গতকাল জানান, পুলিশ না পাওয়ায় গুলশান এভিনিউতে উচ্ছেদ চালানো যায়নি৷ আজ বুধবার ধানমন্ডির সাত মসজিদ রোডে রাস্তার দু’পাশের অবৈধ পার্কিং দখলমুক্ত করা হবে৷ Source:দৈনিক যায়যায়দিন
Date:2007-02-28

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: