কর্নেল অলিকে নিয়ে ফের ধূম্রজাল

এলডিপির নির্বাহী সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল অলি আহমদকে নিয়ে দলে আবারো ধূম্রজাল তৈরি হয়েছে। তিনি এলডিপিতে থাকবেন না কি বিএনপিতে ফিরে যাবেন এমন আলোচনাও চলছে। কর্নেল অলি অবশ্য এলডিপিকেই এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, কর্নেল অলি এলডিপিতে থাকবেন না, বিএনপিতেও ফিরবেন না। বরং এবার তিনি নতুন মিশন নিয়ে এগুচ্ছেন। বিএনপি-আওয়ামী লীগের বাইরে গঠন হতে যাওয়া সম্ভাব্য তৃতীয় একটি নতুন রাজনৈতিক দলে তার সম্পৃক্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এই তৃতীয় দল গঠনের নেপথ্যে যে কজন মূল ভূমিকা রাখছেন কর্নেল অলি তাদের অন্যতম।
জানা গেছে, এলডিপি সভাপতি অধ্যাপক বদরুদ্দোজা চৌধুরীর সঙ্গে কর্নেল অলির নানান ইসুতে সৃষ্ট টানাপড়েন এখনো চলছে। তাদের দুজনের মধ্যে দূরত্ব কমিয়ে আনতে দলের মহাসচিব মেজর (অব.) আব্দুল মান্নান সম্প্রতি উদ্যোগ নিয়েও তেমন সফল হতে পারেননি। দলের মূল কাণ্ডারি এই দুই শীর্ষ নেতাকে এক টেবিলে বসাতেও ব্যর্থ হয়েছেন। এই ব্যর্থতার অনত্মরালেও রয়েছে নানান রহস্য। সূত্রের দাবি, কর্নেল অলি নিজেই চাচ্ছেন না- বি চৌধুরীর সঙ্গে তার দূরত্ব কমে যাক। বরং সৃষ্ট পরিস্থিতিকে আরো চাঙ্গা করে তাকে কারণ হিসেবে দাঁড় করিয়ে নিজ আনুসারীদের নিয়ে এলডিপি থেকে বেরিয়ে আসার চেষ্টা করছেন তিনি। অন্যদিকে বিলুপ্ত বিকল্পধারা ও এলডিপির একটি অংশও চায় নিজের লোকজনকে নিয়ে কর্নেল অলি নতুন করে কোনো সিদ্ধানত্ম নিক।
এলডিপির নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের কয়েক নেতার সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে, তৃতীয় নতুন রাজনৈতিক দলের সঙ্গে নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের কোনো সম্পর্ক নেই। বিএনপি, আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি ও এলডিপির মোটামুটি ‘সৎ’ ও ‘শিক্ষিত’ বলে পরিচিত নেতাদের সমন্বয়ে এই নতুন দল গঠন হতে যাচ্ছে। নতুন দলের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে কর্নেল অলির এরইমধ্যে একাধিকবার গোপন বৈঠকও হয়েছে। অবশ্য কর্নেল অলির এ নতুন মিশন সম্পর্কে তার ঘনিষ্ঠজনদের অনেকেই এখনো অন্ধকারে রয়েছেন। তার সবচে ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত এলডিপির এক নেতা আমাদের সময়কে বলেন, ‘অলি সাহেব কিছু একটা করতে যাচ্ছেন, এটা টের পাচ্ছি। তবে ঠিক কী করছেন তা বুঝতে পারছি না’।
এ ব্যাপারে অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল অলি আহমদ গতকাল আমাদের সময়কে বলেন, এলডিপিকে এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে আমরা প্রতিদিনই মিটিং করছি। বিএনপিসহ বিভিন্ন দলের নেতাদের নিয়ে নতুন দল গঠনের ব্যাপারে এখনো আমার কিছু জানা নেই। যখন জানবো, তখন এ ব্যাপারে কথা বলতে পারবো। Source:দৈনিক আমাদের সময়
Date:2007-03-03

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: