প্রয়োজনীয় সংস্কারের পরই নির্বাচন হবে : ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন

আইন ও তথ্য উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন বলেছেন, প্রয়োজনীয় সংস্কার কার্যক্রমের পরই দ্রুততম সময়ের মধ্যে একটি অর্থবহ নির্বাচন করাই তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান লক্ষ্য। সুশাসন নিশ্চিত করা ছাড়া নির্বাচনের কোন অর্থ নেই। দুর্নীতিপরায়ণরা যদি সহজে নির্বাচিত হতে পারে তা হলে সেটা গ্রহণযোগ্য হবে না। বরং তা হবে জনগণের আস্থাকে অপব্যবহার করে রাজনীতিকে দুর্নীতির ক্ষেত্র হিসেবে পরিণত করা। গরিবের আইনগত ক্ষমতায়ন সংক্রান- জাতিসংঘ কমিশন সম্পর্কে জাতীয় পর্যায়ে সংলাপ প্রক্রিয়ার সমাপনী অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আইন ও তথ্য উপদেষ্টা এ কথা বলেন। এ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন অধ্যাপক রেহমান সোবহান। গরিবের আইনগত ক্ষমতায়ন সংক্রান- জাতিসংঘ কমিশনের কমিশনার ও ব্র্যাকের চেয়ারপারসন ফজলে হাসান আবেদ এবং ড. শরিফ ভূঁইয়া এই অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন। আইন ও তথ্য উপদেষ্টা বলেন, দেশে সাংবিধানিক প্রক্রিয়া এবং গণতান্ত্রিক পদ্ধতি ফিরিয়ে আনার জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকার চেষ্টা করছে। গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সবার জন্য ন্যায় এবং নিরাপদ সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একটি কঠিন সময় অতিক্রম করছি। গরিবের ক্ষমতায়ন প্রতিষ্ঠার জন্য নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ পৃথকীকরণসহ বেশ কিছু আইনগত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।
নির্বাচনী সংস্কারসহ বিভিন্ন সংস্কার কর্মসূচির বর্ণনা দিয়ে আইন উপদেষ্টা বলেন, দুর্ভাগ্যবশত গত কয়েক বছর যাবৎ গণতন্ত্রের ছত্রছায়ায় সুশাসনের জন্য বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানকে দুর্বল করা হয়েছে। এই সরকার অল্প সময়ের মধ্যে অগ্রাধিকার নির্ধারণ করে কাজ শুরু করছে। নির্বাচনী পদ্ধতিসহ দেশের অর্থনৈতিক অন্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে সংস্কার করার ব্যাপারে গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। শুধু নির্বাচন ও সুশাসনের জন্য দুর্নীতির বিরুদ্ধে সংগ্রাম শুরু করা হয়েছে। বিচার ব্যবস্থার উন্নয়নের জন্য নির্বাহী বিভাগ থেকে বিচার বিভাগ পৃথক করা হয়েছে। এর আগে বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়। এ অধিবেশনে গরিবের আইনগত ক্ষমতায়ন সংক্রান- জাতিসংঘ কমিশনের নির্বাহী পরিচালক ড. নরেশ সিংহ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। দ্বিতীয় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ব্যারিস্টার আমীর-উল ইসলাম এবং তৃতীয় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন ড. শামসুল বারী। ব্র্যাকের চেয়ারপারসন ফজলে হাসান আবেদ উদ্বোধনী অধিবেশনে বক্তব্য রাখেন। গরিবের আইনগত ক্ষমতায়ন সংক্রান- জাতিসংঘ কমিশন এবং ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব ল’র যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই সংলাপে ড. শরিফ ভূঁইয়া, আফসান চৌধুরী ও ড. ফেরদৌস জাহানের প্রবন্ধ উপস্থাপন করা হয়। আফসান চৌধুরীর প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ব্যারিস্টার মনছুর হাসান এবং ড. ফেরদৌস জাহানের প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড. শাহদীন মালিক।
এই সংলাপে অ্যাডভোকেট নিজামুল হক নাছিম, ড. হামিদা হোসেন, আনিসুর রহমান, ড. শাহদীন মালিক, অ্যাডভোকেট জিয়াদ আল মল্লিক, ব্যারিস্টার সারা হোসেন, ড. সালাউদ্দিন, প্রফেসর রেহমান সোবহান ও খুশী কবীর বক্তব্য রাখেন।
সভাপতির বক্তৃতায় বিশিষ্ট আইনজীবী ড. কামাল হোসেন বলেন, যারা এমপি নির্বাচিত হন, তারা গরিবদের জন্য কাজ করেন না। তারা শুধু নিজেদের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য কাজ করেন। নিজেরা হন কোটিপতি কিন’ গরিব গরিবই থেকে যায়। তিনি আগামী নির্বাচনে যারা গরিবদের জন্য কাজ করবেন তাদের নির্বাচিত করার আহ্বান জানান।
ব্র্যাকের চেয়ারপারসন ফজলে হাসান আবেদ বলেন, গরিবদের জন্য আইন দরকার। হকারদের লাইসেন্স দেয়া দরকার। তাদের আইনি বৈধতা থাকলে তারা স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারবে।
অধ্যাপক রেহমান সোবহান খাসজমি চিহ্নিত করে ভূমিহীনদের মধ্যে বরাদ্দ করার দাবি জানিয়ে বলেন- খাসজমি ভূমিহীনরা পায় না, পায় প্রভাবশালীরা। এ ব্যাপারে সুশীল সমাজকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার জন্য তিনি আহ্বান জানান।
২০ হাজার বসি-বাসীকে
পুনর্বাসন করা হবে
আইন উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন বলেন, ২০ হাজার বসি-বাসীকে পুনর্বাসন করা হচ্ছে। এ জন্য সরকার দুটি জায়গা বরাদ্দ করেছে। তিনি বলেন, বসি-বাসীদের পুনর্বাসনের জন্য একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি বসি-বাসীদের চিহ্নিত করে তাদের পুনর্বাসন করার উদ্যোগ নিচ্ছে।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, হকারদের সমস্যা সমাধানের জন্য সরকার তাদের বিকল্প জায়গা দিচ্ছে, তারা সেখানে ব্যবসা করতে পারবে। তবে এই মুহূর্তে সপ্তাহে দু’দিন তারা এসব বিকল্প জায়গায় বসবে। Source:দৈনিক যুগান্তর
Date:2007-03-04

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: