খালেদা জিয়ার গতিবিধি সীমিত করা হয়েছে

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া কি নজরবন্দি? দৈনিক ইত্তেফাকে তার এবং আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে নজরবন্দি করা হয়েছে বলে ফলাও করে মুদ্রিত খবরটির সত্যাসত্য যাচাই করতে ‘যুগান-র’ যোগাযোগ করেছিল স্বরাষ্ট্র সচিব আবদুল করিমের সঙ্গে। তিনি জানান, এই মর্মে কোন কিছুই তার জানা নেই। তবে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সুধা সদনের বাইরে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন।
‘যুগান-র’ বিশ্বস- সূত্রে জানতে পেরেছে, খালেদা জিয়াকে আনুষ্ঠানিকভাবে অন-রীণ করা না হলেও গতিবিধি সীমিত রাখার জন্য তাকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় একজন সরকারি কর্মকর্তা খালেদা জিয়ার টেলিফোনে এ বার্তা জানিয়ে দেন। তারপর থেকে তিনি তার ক্যান্টনমেন্ট বাসভবনের বাইরে যাননি। শুক্রবার অবশ্য তিনি সাধারণত কোন অনুষ্ঠানে অংশ নেন না।
শুক্রবার সন্ধ্যায় শেখ হাসিনা বারডেমে দলীয় নেতা জিল্লুর রহমানকে দেখতে যান। সেখানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, তিনি নজরবন্দি নন, বারডেমে এসেছেন_ এটাই তো তার প্রমাণ।
তবে বিএনপি সূত্র দাবি করেছে, তারেক রহমানকে গ্রেফতারের পর সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খালেদা জিয়াকে বাসা থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছিল।
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের টেলিফোনের পর খালেদা জিয়া দলের কয়েকজন সিনিয়র নেতাকে তার ক্যান্টনমেন্টের বাসভবনে যেতে বলেন। রাত ৮টায় তার বাসভবনে দলের মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়া, সহ-সভাপতি এমকে আনোয়ার, ড. ওসমান ফারুক ও যুগ্ম মহাসচিব নজরুল ইসলাম খান যান। সেখানে তারা রাত ৯টা পর্যন- অবস্থান করে তারেক রহমানের গ্রেফতারের ঘটনায় সহানুভূতি প্রকাশ করেন। একই সঙ্গে তারা উদ্ভূত পরিস্থিতিতে করণীয় নিয়ে আলোচনা করেন। বৈঠকের সিদ্ধান- অনুযায়ী আবদুল মান্নান ভূঁইয়া উদ্বেগ্ন প্রকাশ করে একটি বিবৃতি দেন। এ সময় খালেদা জিয়া বাসা থেকে বের হতে নিষেধ করার বিষয়টি দলের নেতাদের অবহিত করেন। বিষয়টি নিয়ে তারা প্রথমে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলার সিদ্ধান- নেন। কি কারণে খালেদা জিয়ার গতিবিধি সীমিত করা হয়েছে তা জানতে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) জেডএ খানকে দায়িত্ব দেয়া হয়। জেডএ খান প্রথমে পুলিশের আইজি নূর মোহাম্মদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন। আইজিপি তাকে জানান, তার নিরাপত্তার স্বার্থে শুধু আজকের (বৃহস্পতিবার) জন্য বাসা থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছে।
এ বিষয়ে বিএনপি চেয়ারপারসনের নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) জেডএ খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে শুক্রবার বিকালে তিনি যুগান-রকে জানান, চলমান ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে শুধু বৃহস্পতিবার বাসা থেকে বের হতে নিষেধ করা হয়েছিল।
এদিকে বড় ছেলে তারেক রহমানকে গ্রেফতারের ঘটনায় হতবিহ্বল হয়ে পড়েছেন খালেদা জিয়া। বৃহস্পতিবার রাতে তারেক রহমানকে গ্রেফতার করা হলেও বুধবার সন্ধ্যায় তিনি আগাম খবর পেয়ে যান। সরকারের একজন ঊধর্্বতন কর্মকর্তা খালেদা জিয়াকে বিষয়টি অবহিত করেন বলে জানা গেছে। তাই তিনি তারেক রহমানকে বাঁচাতে সন্ধ্যায় হাওয়া ভবনে প্রতিবেশী একটি দেশের কূটনীতিককে ডেকে সহযোগিতা চান। কিন\’ ওই কূটনীতিক অপারগতা প্রকাশ করেন। পরে নিরুপায় হয়ে খালেদা জিয়া দ্রুত বাসভবনে চলে যান।
সূত্রঃ http://jugantor.com/online/news.php?id=52941&sys=1

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: