ভারতের পর শ্রীলংকা – প্রস্তুত বাংলাদেশ

একটা অনিন্দ্য সুন্দর জয়ে লাল-সবুজ রঙটা আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠেছে, আরও মাদকতাময় হয়ে উঠেছে। উজ্জীবিত বাংলাদেশ আরেকটি জয়ের স্বপ্নে বিভোর। ভারতের পর এবার শ্রীলংকা। আগামীকালই সেই ম্যাচ। ভারতের বিপক্ষে অনায়াস এবং প্রাধান্যনির্ভর জয়ে টাইগারদের মনোবল স্বভাবতই চাঙা। মানসিকভাবে তারা প্রস্তত। মনস্তাত্ত্বিকভাবে এগিয়ে।
এবার লড়াইটা হবে বাঘে-সিংহে। জয় সবসময় আত্মবিশ্বাস যোগায়, সাহস বাড়ায়। আর সেই জয় যদি আসে পরাক্রমশালী প্রতিপক্ষকে পরাস্ত করে, তাহলে নিজেদের উদ্দীপ্ত করা যায় বিপুলভাবে। শ্রীলংকা ম্যাচের আগে ঠিক সেই কাজটাই করতে চাইছেন বাংলাদেশ কোচ ডেভ হোয়াটমোর। পরিষ্কার বলেছেন তিনি, ‘জয়কে অভ্যাসে পরিণত করাই এখন জরুরি আমাদের জন্য।’ ভারত-বধের পর এর চেয়ে ভালোভাবে আর উজ্জীবিত করা যেত না টাইগারদের। ভারতকে যেমন আগেও হারিয়েছিল বাংলাদেশ, তেমনি শ্রীলংকার বিপক্ষেও জয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে হাবিবুল বাশারদের। তার ওপর শুরু থেকে শেষ পর্যন- ভারতের ওপর আধিপত্য বিস্তার করে যে জয় মুঠোবন্দি করেছে বাংলাদেশ, সেটি শ্রীলংকা ম্যাচে সঞ্জীবনী শক্তির কাজ করবে তামিমদের জন্য। তরুণ তুর্কিদের নৈপুণ্য-নৃত্যে বাংলাদেশ শনিবার কুইন্সপার্ক ওভালে যে বিজয়-কেতন উড়িয়েছে, তা আগামীকালও পতপত করে উড়বে, বাংলাদেশের আপামর জনসাধারণের এটাই প্রত্যাশা। এখন আর এই প্রত্যাশা বাড়াবাড়ি মনে হয় না। সামর্থ্যের, যোগ্যতার প্রমাণ বাংলাদেশকে সেই উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

এদিকে আরেকটা পরাজয় ক্ষতচিহ্ন এঁকে দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেটের গায়ে। বাংলাদেশের অবিস্মরণীয় জয়ের রেশ যেন অনিঃশেষ। দু’দিন কেটে যাওয়ার পরও বিশ্ব মিডিয়া তামিমদের অবিস্মরণীয় সাফল্যগাথায় মুগ্ধতার মুক্তো ছড়িয়ে যাচ্ছে। হাবিবুলদের ওপর প্রশংসাবর্ষণে যোগ দিয়েছেন সাবেক খ্যাতিমান ক্রিকেটাররাও। তাদের মধ্যে ভারতের দিকপাল ক্রিকেটাররাও রয়েছেন। ব্যাটে-বলে ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন- দ্রাবিড়, শচীন, সৌরভের ভারতকে শাসন করে বাংলাদেশের উজ্জীবিত তরুণ-তুর্কিরা পাঁচ উইকেটের যে জয় পেয়েছে, তাতে ক্রিকেটবিশ্ব অভিভূত। রোববার ইংল্যান্ড-কানাডা ও অস্ট্রেলিয়া-হল্যান্ড ম্যাচের ধারাভাষ্যকাররা আগের দিন বাংলাদেশের তাক লাগানো জয়ের প্রশংসায় বাক্য ব্যয় করেছেন বেশি।

ভারতের কিংবদনি-র ব্যাটসম্যান সুনীল গাভাস্কার বলেছেন, ‘দারুণ খেলেছে বাংলাদেশ।’ এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। তার সঙ্গে যোগ করেন, ‘কি করে জিততে হয়, তা বাংলাদেশের কাছে ভারতের শেখা উচিত।’ গাভাস্কারের মতে, ‘এই জয় বাংলাদেশের প্রাপ্য। দুর্দান- বল করেছে বাংলাদেশের স্পিনাররা। আর ব্যাটসম্যানরা ঠিক সময়ে ঠিক কাজটা করেছে। কোনভাবেই বাংলাদেশের জয়কে খাটো করে দেখার উপায় নেই।’ আরেক সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রী তার কলামে লিখেছেন, ‘ভারত আসলে হেরেছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের কাছে।’ বাংলাদেশের তিন ব্যাটিং-হিরো তামিম ইকবাল, সাকিব-আল-হাসান, মুশফিকুর রহিম- তিনজনেরই বয়স ১৯-এর নিচে।

সৌরভ গাঙ্গুলীও মেনে নিতে পারছেন না এই পরাজয়। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘এই ম্যাচ হারাটা ঠিক হয়নি।’ বাংলাদেশের অবিস্মরণীয় জয়ে, এমনকি বারমুডার ক্যারিবীয় কোচ গাস লোগিও উদীপ্ত। ভারত ম্যাচের আগে লোগি বলেই ফেলেন, ‘আমরা অনুপ্রাণিত হচ্ছি বাংলাদেশের এই দুর্দান- জয়ে।’
এদিকে ভারতের হায় হায় রব উঠেছে বাংলাদেশের কাছে পাঁচ উইকেটের পরাজয়ে। ভারতের অনেক সাবেক ক্রিকেটার মনে করেন, বাংলাদেশের কাছে হেরে ভারতের সব আশা শেষ হয়ে গেল। তাদের অনেকেই ধরে নিয়েছেন, ভারতের সবচেয়ে খারাপ বিশ্বকাপ যাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজেই। কপিল দেব বলেছেন, ‘ভারত বিশ্বকাপ জিতবে, এ কথাটা আর মুখে আনবেন না।’ রাহুল দ্রাবিড়কে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হচ্ছে। প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে তার নেতৃত্বের গুণাবলী। এমনকি, সৌরভ গাঙ্গুলীকে অধিনায়ক হিসেবে ফিরিয়ে আনারও অনুচ্চকণ্ঠে আওয়াজ উঠেছে।

এদিকে বিশ্ব মিডিয়ার প্রশংসা অর্জন করা টাইগাররা এখন ত্রিনিদাদে সবচেয়ে জনপ্রিয় দল। শপিং সেন্টারে অটোগ্রাফ শিকারিরা ধাওয়া করছে তামিম-সাকিব-মুশফিকদের। রোববার ত্রিনিদাদ প্রবাসী বাংলাদেশীরা লাল-সবুজের সাফল্যে দলকে অভিনন্দন জানাতে তাদের সম্মানে এক নৈশভোজের আয়োজন করে। কেক কাটা হয়। আজ ২০ মার্চ তামিম ইকবালের ১৮তম জন্মদিন। এক কাজে দুই কাজ হয়ে যায়। Source:দৈনিক যুগান্তর
Date:2007-03-20

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: