সংক্রমণ ঠেকাতে বিমানের ৩০ হাজার মুরগি নিধন

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের মুরগির খামারে মারাত্মক রোগ ছড়িয়ে পড়ায় গত সপ্তাহে ৩০ হাজারেরও বেশি মুরগি মেরে ফেলা হয়। দেশর কয়েকটি গবেষণাগারে নমুনা পরীৰার মাধ্যমে কর্তৃপৰ মঙ্গলবার এটি নিউক্যাসল অর্থাৎ রাণিৰেত রোগ বলে নিশ্চিত হয়েছে। দুটি রাষ্ট্রায়ত্ত ও দুটি বেসরকারি গবেষণাগার পৃথক পরীৰার মাধ্যমে এই ভাইরাসজনিত রোগটির ব্যাপারে নিশ্চিত হয়েছে কর্তৃপৰ। রোগটি মুরগির জন্য মারাত্মক সংক্রামক হলেও মানুষের শরীরে সংক্রমিত হওয়ার রেকর্ড নেই। সরকার রোগটি সম্পর্কে আরও নিশ্চিত হতে আক্রানত্দ মুরগির শরীর থেকে সংগ্রহ করা নমুনা পরীৰার জন্য থাইল্যান্ড পাঠিয়েছে। এ ব্যাপারে সরকারের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, “দেশের পরীৰাগার থেকে পাওয়া ফলাফলের ব্যাপারে আমরা আস্থাশীল। তবে আনত্দর্জাতিক মানদণ্ডের নিরিখে নিশ্চিত হওয়ার জন্য আমরা নমুনা বিদেশের গবেষণাগারে পাঠিয়েছি।” সাভারে বিমানের খামার থেকে ফেব্রম্নয়ারির ২২ থেকে ২৫ মার্চ সময়ের মধ্যে আক্রানত্দ মুরগির শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এই রোগের কারণে ২২৫ বিঘার বিসত্দৃত খামারটিতে মুরগির উৎপাদন বন্ধ হওয়ার পাশাপাশি কর্তৃপৰ খামারটির শাক-সবজি ও ফলমূলও সাময়িকভাবে ব্যবহার না করার সিদ্ধানত্দ নিয়েছে। তাই বিমানের ক্যাটারিং সার্ভিসের জন্য এ সব পণ্য আমদানি করারও সিদ্ধানত্দ নিতে হয়েছে বিমানকে। বিমানের একজন ঊধর্্বতন কর্মকর্তা বলেন, “আমরা খামারে উৎপাদন স্থগিত রেখেছি। পশুসম্পদ বিভাগ থেকে সবুজ সংকেত না পাওয়া পর্যনত্দ উৎপাদন বন্ধ রাখা হবে।”
সূত্রঃ http://www.ittefaq.com/get.php?d=07/03/22/w/n_ztquuy

Advertisements

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: