স্বাধীনতা দিবস উদযাপিত মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস-বায়নের দৃঢ় অঙ্গীকার

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস-বায়নের মাধ্যমে সুখী ও সমৃদ্ধিশালী দেশ গঠন, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব সমুন্নত রেখে জনগণের অর্থনৈতিক মুক্তি অর্জন এবং স্বাধীনতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক শক্তি-সন্ত্রাস-দুনর্ীতি প্রতিরোধের দৃঢ় অঙ্গীকারের মধ্য দিয়ে জাতি সোমবার যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করেছে স্বাধীনতার ৩৬তম বার্ষিকী। মাতৃভূমিকে পরাধীনতার শৃংখল থেকে মুক্ত করতে সর্বো\”চ ত্যাগ এবং জীবন উৎসর্গকারী শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি অকৃত্রিম শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছে বাঙালি জাতি। স্বাধীনতার সুফল সাধারণ মানুষের ঘরে ঘরে পেঁৗছে দেয়ার শপথ গ্রহণও করেছেন তারা। স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত বাঙালি শ্রেষ্ঠ সন-ানদের স্বপ্ন এবং দেশবাসীর আশা-আকাঙ্ক্ষাকে বাস-বায়নের জন্য দিবসটিতে জাতীয়ভাবে এবং বেসরকারিভাবে নানা কর্মসূচি পালিত হয়। দিবসের ঊষালগ্নে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে স্বাধীনতা যুদ্ধে নাম না জানা লাখো শহীদের অমর স্মৃতির উদ্দেশে প্রথম পুষ্পস-বক অর্পণ করেন রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ এবং তারপর প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখর\”দ্দীন আহমদ, স্পিকার ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, উপদেষ্টাবৃন্দ, কূটনৈতিক মিশনের সদস্য, ঢাকার মেয়র, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ। ভোরে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে দিবসটির সূচনা ঘটে। সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে সরকারি-বেসরকারি অফিস ও ভবনগুলোতে উত্তোলন করা হয় জাতীয় পতাকা। ভোর ৫টা ৫৫ মিনিটে জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ প্রথম এবং পরে প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখর\”দ্দীন আহমদ ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্মরণে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করে কিছু সময় নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন। এ সময় সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর একটি চৌকস দল রাষ্ট্রীয় অভিবাদন জানায়। তখন বিউগলে কর\”ণ সুর বেজে ওঠে। উপদেষ্টারা, কূটনীতিক, তিন বাহিনীর প্রধান, মুক্তিযোদ্ধা, ঊধর্্বতন সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। কর্মকাণ্ডের ওপর বিধিনিষেধ থাকায় এবার রাজনৈতিক দলগুলো কোনরকম কর্মসূচি পালন করেনি। আওয়ামী লীগ পূর্বনির্ধারিত কর্মসূচি বাতিল করে। বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ‘নিরাপত্তাজনিত কারণে’ স্মৃতিসৌধে গমন থেকে বিরত রাখা হয়েছে। তাদের পুষ্পস-বকে দলের নামও ছিল না।
জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন
জঙ্গি হামলার আশংকা, নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা, তল্লাশি আর প্রখর রোদ উপেক্ষা করেও জাতির শ্রেষ্ঠ সন-ানদের শ্রদ্ধা জানাতে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে গিয়ে পুষ্পস-বক অর্পণ করেছেন সর্বস-রের মানুষ। রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের ওপর বিধিনিষেধের কারণে এবার শহীদ মিনারে রাজনৈতিক নেতা ও কমর্ীদের উপচেপড়া ভিড় দেখা যায়নি। ফুল দেয়া নিয়ে ছিল না কোনরকম ধাক্কাধাক্কি, মারামারি। ছিল না কোন বিশৃঙ্খল পরিবেশ। রাজনৈতিক নেতাদের মিছিলে ছিল না কোন ধরনের ব্যানার-ফেস্টুন। মাঝে-মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা সংগঠনগুলোর মিছিল থেকে হালকা শব্দে ভেসে এসেছে শহীদদের স্মরণে দেশের গান, স্বাধীনতার গান। মেটাল ডিটেক্টর বসানো গেট দিয়ে প্রবেশ করতে হয়েছে আগতদের। নিরাপত্তার কারণে এবার কাউকে স্মৃতিসৌধের মূল বেদির কাছে যেতে দেয়া হয়নি। ভোর ৫টা ৫৫ মিনিটে কড়া নিরাপত্তা বেষ্টনীর মধ্য দিয়ে স্মৃতিসৌধে আসেন রাষ্ট্রপতি প্রফেসর ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ। তিনি চলে যাওয়ার পর ৬টায় শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখর\”দ্দীন আহমদ ও উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যরা। এ সময় বিউগলে কর\”ণ সুর বেজে ওঠে। রাষ্ট্রপতি ও প্রধান উপদেষ্টা দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করেন। এরপর স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার ও বাংলাদেশে নিযুক্ত কূটনৈতিক কোরের ডিন, রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার, তিন বাহিনীর প্রধানসহ বিভিন্ন সামরিক-বেসামরিক উ\”চপদস্থ কর্মকর্তারা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। সাধারণ মানুষের জন্য স্মৃতিসৌধ উন্মুক্ত করে দেয়া হয় ৬টা ২১ মিনিটে। কিন\’ তার আগে ঢাকার মেয়র, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা, মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের লোকজন, মুক্তিযুদ্ধ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল, মুক্তিযুদ্ধ সংসদের নেতাকর্মীরা ফুল দিয়ে শহীদদের প্রতি সম্মান জানান। ৬টা ২১ মিনিটে সাধারণ মানুষের জন্য শহীদ মিনার উন্মুক্ত করে দেয়ার পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ ৩/৪টি সংগঠন ফুল দেয়। ৬টা ৪৫ মিনিট থেকে আস-ে আস-ে বিভিন্ন সংগঠন, রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা আসতে শুর\” করেন। এর মধ্যে দলীয় ব্যানার ছাড়া ফুল দিতে আসেন বিএনপি, আওয়ামী লীগ, কমিউনিস্ট পার্টি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি প্রভৃতি।
জাতীয় প্যারেড স্কোয়ারে কুচকাওয়াজ
সকালে ঢাকা পুরনো বিমানবন্দরের জাতীয় প্যারেড স্কোয়ারে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, বিমান বাহিনী বিএনসিসি, বিডিআর, বাংলাদেশ কোস্টগার্ড, র্যাব, পুলিশ, আনসার, ভিডিপি ও মুক্তিযোদ্ধাদের সমন্বয়ে সম্মিলিত কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ড. ইয়াজউদ্দিন আহম্মেদ কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ করেন ও পরিদর্শন করেন। রাষ্ট্রপতি প্যারেড স্কোয়ারে পেঁৗছলে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) এমএ মতিন বীরপ্রতীক তাকে অভ্যর্থনা জানান। কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখর\”দ্দীন আহমদ, স্পিকার ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, প্রধান বিচারপতি মোহাম্মদ র\”হুল আমিন, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) এমএ মতিনসহ উপদেষ্টাবৃন্দ, সেনাবাহিনী প্রধান লে. জেনারেল মইন উ আহমেদ, নৌবাহিনী প্রধান রিয়ার এডমিরাল সরওয়ার জাহান ও বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার ভাইস মার্শাল ফখর\”ল আজম, মুক্তিযোদ্ধা, উ\”চপদস্থ সামরিক-বেসামরিক কর্মকর্তা, বিদেশী মিশনের সদস্যবৃন্দ ও শহীদ পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। কুচকাওয়াজে অধিনায়কত্ব করেন নবম ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী। কুচকাওয়াজে সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম ও সাফল্য তুলে ধরা হয়। চলন- ট্রাকের ওপর র্যাব অপরাধীদের ধরে নিয়ে যা\ে”ছ। অপরাধীরা হাত উঁচু করে দাঁড়িয়ে। হাতকড়া পরা\ে”ছ র্যাব। সাংবাদিকরা ধারণ করছেন সেই চিত্র। এটা ছিল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ডিসপ্লে। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম কুচকাওয়াজে তুলে ধরা হয়। কুচকাওয়াজের কিছুক্ষণ আগে সেনাবাহিনী ও বিমান বাহিনীর কয়েকটি জেটবিমান ও হেলিকপ্টার প্যারেড স্কোয়ারের ওপর দিয়ে কয়েকবার চক্কর দেয়। তিন বাহিনীর বিভিন্ন বিভাগের চৌকস সদস্যরা কুচকাওয়াজে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম ও সাফল্যের ওপর কসরত প্রদর্শন করে। এ উপলক্ষে প্যারেড স্কোয়ার নানা বেলুন, ব্যানার, ফেস্টুন দিয়ে সজ্জিত করা হয়। মুক্তিযুদ্ধের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মুক্তিযুদ্ধকালীন সেক্টর কমান্ডার ও শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানসহ মুক্তিযুদ্ধের বীর সেনানিদের প্রতিকৃতিও প্যারেড স্কোয়ারের সাজসজ্জায় স্থান পায়। পুরো অনুষ্ঠান দর্শকদের মুগ্ধ করে।
কুচকাওয়াজে রাজনীতিবিদদের মধ্যে বিএনপির মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়া, সেক্টর কমান্ডার লে. জেনারেল (অব.) মীর শওকত আলী, মেজর জেনারেল (অব.) জেডএ খান, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিল, আবদুর রাজ্জাক, তোফায়েল আহমেদ, মতিয়া চৌধুরী, সাবের হোসেন চৌধুরী, সুলতান মোঃ মনসুর, আবদুল মান্নান, জাতীয় পার্টির প্রেসিডেন্ট এইচএম এরশাদ, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি একিউএম বদর\”দ্দোজা চৌধুরী, ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মেজর জেনারেল (অব.) আনোয়ার\”ল কবীর তালুকদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
আওয়ামী লীগ
ভোরে দেশব্যাপী আওয়ামী লীগ কার্যালয়গুলোতে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। ধানমণ্ডি বঙ্গবন্ধু ভবনে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের পর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পর্ণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিল, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য আবদুর রাজ্জাক, বেগম সাজেদা চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, বেগম মতিয়া চৌধুরী, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত প্রমুখ। এছাড়াও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেছে আওয়ামী যুবলীগ, ছাত্রলীগ, মহানগর আওয়ামী লীগ, তর\”ণ লীগ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট। পরে দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল জলিলের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধে গিয়ে পুষ্পাঘর্্য অর্পণের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা সংগ্রামের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন।
বিএনপি
বিএনপির পক্ষ থেকে দলের প্রতিষ্ঠাতা ও শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পস-বক অর্পণ করা হয়। দলের পক্ষে মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়াসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দ সকালে শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পস-বক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় জিয়াউর রহমানের আত্দার প্রতি মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। জাতীয় সংসদের স্পিকার ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার ও ডেপুটি স্পিকার আখতার হামিদ সিদ্দিকী পুষ্পস-বক অর্পণের মাধ্যমে জিয়াউর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। দলের চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া মাজারে যাননি। ভোরে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।
সকাল সাড়ে ৭টায় বিএনপি মহাসচিব আবদুল মান্নান ভূঁইয়া জিয়াউর রহমানের মাজারের মূল বেদিতে পুষ্পস-বক অর্পণ করেন। এ সময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, সাবেক চিফ হুইপ খন্দকার দেলোয়ার হোসেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব বেগম সেলিমা রহমান, নজর\”ল ইসলাম খান, অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন। বিএনপি মহাসচিবের পরই শ্রমিক দল, যুবদল, কৃষক দল, মহিলা দল, জাসাস ও জিসাসসহ বিএনপির কয়েকটি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে জিয়াউর রহমানের মাজারে পুষ্পস-বক অর্পণ করা হয়। সকাল ৮টায় জাতীয় সংসদের স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকার মাজারে পুষ্পস-বক অর্পণ করেন। তবে বিএনপির অঙ্গসংগঠন ছাত্রদলসহ আরও কয়েকটি অঙ্গসংগঠন ও এর অধিকাংশ নেতাকমর্ীকে মাজারে দেখা যায়নি। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে অতীতের তুলনায় মাজারে নেতাকমর্ীদের পদচারণা ছিল অনেক কম।
মুক্তিযোদ্ধা সংসদ
দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দেশব্যাপী কর্মসূচি পালন করে। জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন কমান্ডসমূহে একযোগে মিলাদ, মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, আলোচনার আয়োজন করা হয়। বিকালে সংসদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সর্বস-রের মুক্তিযোদ্ধার মিলনমেলা অনুষ্ঠিত হয়। সংসদের কেন্দ্রীয় চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ আবদুল আহাদ চৌধুরী, মহাসচিব মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, কেন্দ্রীয় নেতা সুলতান উদ্দিন আহম্মেদ রাজা, মনোয়ার\”ল হক খান, সফিকুল বাহার মজুমদার টিপু প্রমুখ মিলনমেলায় অংশ নেন। মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অপর অংশের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী চৌধুরীর সঙ্গে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ ও মুক্তিযোদ্ধাদের এক মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয় তোপখানা রোডের কার্যালয়ে।
অন্যান্য দল ও সংগঠন
দিবসটি উপলক্ষে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরে দিনব্যাপী শিশু-কিশোরদের চিত্রাংকন প্রতিযোগিতাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমী বিকালে আলোচনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট বিকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আলোচনা, আবৃত্তি, নাটক ও সংগীতানুষ্ঠানের আয়োজন করে। এছাড়াও স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে সাভার স্মৃতিসৌধে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণসহ রাজধানীতে আড্ডা, মিলনমেলা, মতবিনিময়, মিলাদ, স্মৃতিমূলক সভা করেছে সিপিবি, জয়বাংলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, ১১ দল, জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, মুক্তিযোদ্ধা ঐক্যপরিষদ, আওয়ামী তর\”ণ লীগ, ছাত্র ইউনিয়ন, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় শ্রমিক লীগ, জাতীয় মহিলা আইনজীবী সমিতি, ওয়ার্কার্স পার্টি, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট ও আমরা মুক্তিযোদ্ধার সন-ান।
কারাগারে উন্নতমানের খাবার
স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে রোবাবার কারাগারে আটক বন্দিদের মধ্যে উন্নতমানের খাবার সরবরাহ করা হয়েছে।
কারা সূত্র জানায়, স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বন্দিদের উন্নতমানের খাবার দেয়ার নিয়ম রয়েছে। সে অনুযায়ী সোমবার ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক বন্দিদের জন্য সকালে খিচুরি ও ডিম। দুপুরে র\”ই মাছ, সর\” চালের ভাত ও আলুর দম সরবরাহ করা হয়। রাতে পোলাও, খাসির মাংস, সালাদ ও ফল সরবরাহ করা হয়।
সূত্রঃ http://jugantor.com/online/news.php?id=56258&sys=1

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: