দুই শর্তে খালেদা বিদেশে যেতে রাজি

সাবেক প্রধানমন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বিদেশে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে তিনি প্রয়োজনীয় কাজ সারতে ক’দিন সময় নিতে চাচ্ছেন। শিগগিরই বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমানের কাছে দলের চেয়ারপারসনের দায়িত্ব হস্তান্তর করে তিনি বিদেশে চলে যাবেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। সূত্র মতে, একটি বিদেশী কূটনীতিক মহলের মধ্যস্থতায় দুটি শর্তে খালেদা জিয়া বিদেশে যেতে রাজি হয়েছেন। শর্ত দুটি হচ্ছে, বিদেশে যাওয়ার সময় ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোকে সঙ্গে নেওয়া এবং কারাবন্দী বড়ো ছেলে তারেক রহমানকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করা। প্রথমে ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি আরব এবং পরে সেখান থেকে অন্য কোনো সুবিধাজনক দেশে যেতে পারেন খালেদা জিয়া।
সূত্র জানায়, দেশ ছেড়ে যাওয়া ও বিএনপি চেয়ারপারসনের দায়িত্ব হস্তান্তরের বিষয়টি নিশ্চিত হতে বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ মওলানা আবুল কালাম
আজাদকে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় খালেদা জিয়ার ক্যান্টনমেন্টের বাসায় পাঠানো হয়। মওলানা আজাদ প্রায় ১ ঘণ্টা খালেদা জিয়ার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে সেখান থেকে গুলশানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য এম সাইফুর রহমানের বাসায় যান। সাইফুর রহমানের বাসায় সে সময় উপস্থিত ছিলেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্যাট্রিসিয়া এ বিউটেনিস, ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরী, জাপানের রাষ্ট্রদূত মাসাউকি, বিএনপি নেতা চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, ড. ওসমান ফার”ক, ডা. সালাউদ্দিন, মহিলা দলনেত্রী শাম্মী আখতার, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. আকবর আলী খান প্রমুখ। সাইফুর রহমানের পক্ষ থেকে এই ঘরোয়া সমাবেশকে ডিনার পার্টি বলা হলেও সেদিন তার বাসায় আগতদের মধ্যে একটি দীর্ঘ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে মওলানা আবুল কালাম আজাদ খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার যে কথাবার্তা হয়েছে তা তুলে ধরেন। পরে এ নিয়ে বৈঠকে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে বিস্তারিত আলোচনা হয়। সূত্র জানায়, আলোচনাকালে মওলানা আজাদ খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়ার ব্যাপারে দুটি শর্তের কথা তুলে ধরেন।
জানা গেছে, বিএনপির একটি বড়ো অংশ খালেদা জিয়া বিদেশ গেলে মহাসচিব আবদুল মান্নান ভুঁইয়াকে দলের চেয়ারম্যান করার পক্ষে। কিন’ খালেদা জিয়া তাকে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়ার বিপক্ষে। দেশে জর”রি অবস্থা ঘোষণার পর থেকে দলীয় কর্মসূচিতে অংশ নেওয়া থেকে দূরে থাকা ও তার অনুসারীদের নিয়ে নতুন দল গঠনের উদ্যোগ নেওয়ায় মান্নান ভুঁইয়ার সঙ্গে খালেদা জিয়ার দূরত্ব বাড়ে। এ কারণেই খালেদা জিয়া মান্নান ভুঁইয়াকে না দিয়ে সাইফুর রহমানকে বিএনপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দিয়ে বিদেশে যেতে চাচ্ছেন বলে সূত্র জানিয়েছে।
সূত্র জানায়, বেশ কদিন আগে থেকেই খালেদা জিয়া বিদেশে যাচ্ছেন বলে জল্পনা-কল্পনা চলতে থাকলেও তিনি নিজেই দেশ ছেড়ে যাওয়ার ব্যাপারে নেতিবাচক মনোভাব পোষণ করেন। কিন’ বিদেশে যাওয়ার জন্য পরোক্ষভাবে চাপ আসতে থাকায় তিনি মনোপীড়ায় ভোগেন। সব কিছু হিসেবনিকেশ করে শেষ পর্যন্ত ভবিষ্যৎ পরিণতির কথা ভেবে তিনি বিদেশে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। যাওয়ার আগে কাকে দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া যায় তা নিয়ে অনেক চিন্তাভাবনা করে তিনি সাইফুর রহমানকে দায়িত্ব দেওয়ার পক্ষে অবস্থান নেন। জানা গেছে, সাইফুর রহমান প্রথমে দায়িত্ব নিতে অস্বীকৃতি জানালেও বিভিন্ন মহল থেকে সহযোগিতার আশ্বাস পেয়ে শেষ পর্যন্ত তিনি বিএনপি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নিতে রাজি হন। মঙ্গলবার রাতে তার বাসায় অনুষ্ঠিত ঐ বৈঠকে সাইফুর রহমানের বিএনপির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেওয়া ও খালেদা জিয়ার বিদেশ যাওয়ার বিষয়টি নিয়ে ফয়সালা হয়েছে বলে জানা গেছে।
জানা গেছে, এর আগে ৩ জন প্রভাবশালী দলীয় নেতার মাধ্যমে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কাছে বিদেশ যাওয়ার প্রস্তাব পাঠানো হয়। প্রতিবারই তিনি এ প্রস্তাব নাকচ করেন। সর্বশেষ মওলানা আবুল কালাম আজাদের মাধ্যমে পাঠানো প্রস্তাবে তিনি রাজি হয়ে যান। এর আগে দলের প্রভাবশালী নেতা লুৎফুজ্জামান বাবর, মেজর জেনারেল (অব) জেড এ খান ও লে. জেনারেল (অব) মাহবুবুর রহমানের মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে বিদেশ যাওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল বলে সূত্র জানিয়েছে।
এ প্রসঙ্গে বিএনপির মুখপাত্র, দলের যুগ্ম মহাসচিব নজর”ল ইসলাম খান এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘খালেদা জিয়া শিগগিরই বিদেশে যাচ্ছেন কিনা তা জানা নেই। আর যেহেতু তিনি বিদেশে যাচ্ছেন কিনা তা নিশ্চিত নই, কাজেই অন্য কাউকে দলের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হবে কিনা, দিলে কাকে দেওয়া হবে এ ব্যাপারে কিছুই আমি জানি না।’ Source:ভোরের কাগজ
Date:2007-04-05

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: