পুলিশকে সততা ও মানুষের বন্ধু হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে হবে

প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদ দেশে সুশাসন ও আইনের শাসন নিশ্চিত করতে পুলিশ বাহিনীর কাজে সর্বাধিক সততা, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা বজায় রাখতে তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। রাজারবাগ পুলিশ লাইনে পুলিশ সপ্তাহ-২০০৭ উদ্বোধনকালে মঙ্গলবার তিনি বলেন, দেশে সুশাসন ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় পুলিশ বাহিনীর ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে। বর্তমান সরকার জনগণের কল্যাণে একটি পেশাদার, দক্ষ, সেবামুখী, স্বচ্ছ ও জবাবদিহিমূলক পুলিশ বাহিনী গড়ে তুলতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।

প্রধান উপদেষ্টা রাজারবাগ পুলিশ লাইনে উপস্থিত হলে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) নুর মোহাম্মদ তাঁকে আনুষ্ঠানিকভাবে স্বাগত জানান। স্পিকার ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টাবর্গ, প্রধান নির্বাচন কমিশনার, নির্বাচন কমিশনারবৃন্দ, তিন বাহিনীর প্রধান, কেবিনেট সচিব, কূটনীতিকবৃন্দ, সাবেক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা এবং উচ্চপদস্থ পুলিশ ও বেসামরিক কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান উপদেষ্টা পুলিশ বাহিনীর যে সকল সদস্য তাদের কর্মজীবনে কৃতিত্ব প্রদর্শনের জন্য পদক লাভের গৌরব অর্জন করেছেন তাদের হাতে বাংলাদেশ পুলিশ পদক ও রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক তুলে দেন। পুলিশকে একটি সেবামূলক বিভাগ হিসেবে বর্ণনা করে প্রধান উপদেষ্টা বলেন, পুলিশ বাহিনীকে নাগরিকদের সাংবিধানিক অধিকার রক্ষার পাশাপাশি দেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের একটি সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করতে হয়। পুলিশকে সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও দুর্নীতিপরায়ণ দুর্বৃত্তদের হাত থেকে নাগরিকদের জীবন ও সম্পদ রক্ষা এবং ব্যবসা-বাণিজ্য-বিনিয়োগ ও শিল্পখাতসহ যাবতীয় অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডকে অপরাধমুক্ত রাখতে হবে।

ড. ফখরুদ্দীন আহমদ অপরাধ দমনে আধুনিক প্রযুক্তির প্রয়োগ ও পরিধি সম্প্রসারণের ওপর জোর দেন। তিনি পুলিশের প্রতি পুরনো ধরনের অপরাধের পাশাপাশি সাইবার ক্রাইম ও মানি লন্ডারিং-এর মতো আধুনিক অপরাধ তদন্তে সামর্থ্য বাড়ানোর নির্দেশ দেন। তিনি বলেন, ‘কেবল আচরণগত ও অবকাঠামোগত উন্নয়নই নয়, উদ্দেশ্য সাধনে আপনাদের কার্যক্রমে প্রক্রিয়া ও পদ্ধতিগত পরিবর্তনও আনতে হবে।’

প্রধান উপদেষ্টা সম্প্রতি ঢাকা মহানগর পুলিশের সকল থানায় চালু হওয়া ‘লিগাল সার্ভিস ডেলিভারি’ ব্যবস্থাকে পুরাতন ও গতানুগতিক ব্যবস্থার বাইরে একটি বৈপ্লবিক পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, থানায় আগতরা এখন ভাল ব্যবহারের পাশাপাশি দ্রুততম সময়ে আইনগত সেবা পাচ্ছেন। তিনি এই ব্যবস্থাকে পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপী সম্প্রসারণ ও একে টেকসই করার পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি নির্দেশ দেন। ড. ফখরুদ্দীন আহমদ মডেল থানার ধারণকে দেশব্যাপী ছড়িয়ে দেয়ার ওপর গুরুত্ব আরোপ করে বলেন, কম্যুনিটি পুলিশ ব্যবস্থার মাধ্যমে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় স্থানীয় লোকদের সম্পৃক্ত করার উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।

তিনি কর্মক্ষেত্রে ও ব্যক্তিজীবনে পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের বিভিন্ন সমস্যার উল্লেখ করে বলেন, সরকার এই সমস্যার ব্যাপারে অবগত রয়েছে এবং তার সমাধানে ব্যবস্থা নেবে। তিনি আরো বলেন, ‘সরকার পারিবারিক রেশন ও ঝুঁকিভাতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন পদক্ষেপের মাধ্যমে পর্যায়ক্রমে এ সকল সমস্যার সমাধানে উদ্যোগ নেবে।

প্রধান উপদেষ্টা ড. ফখরুদ্দীন আহমদ একাত্তরের পঁচিশে মার্চ কালোরাতে পাকিস্তানী বাহিনীর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে অকাতরে প্রাণ বিসর্জনদানকারী এবং একইভাবে স্বাধীনতা যুদ্ধের বিভিন্ন পর্যায়ে ও বিভিন্ন ফ্রন্টে বীরত্ব, দেশপ্রেম ও আত্মত্যাগের সর্বোচ্চ পরাকাষ্ঠা প্রদর্শনকারী বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর বীর সদস্যদের কথা স্মরণ করে বলেন, বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাসে তাঁদের সেই অবদানের কথা স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

প্রধান উপদেষ্টা বলেন, একটি উন্নয়নকামী আর্থ-সামাজিক ব্যবস্থার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে দেশ ও দশের কল্যাণে পুলিশ বাহিনীকে যথাযথ কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করতে হবে। কাজ করতে হবে জনগণের সেবক ও সত্যিকারের বন্ধু হিসেবে।

এর আগে প্রধান উপদেষ্টাকে র‌্যাপিড একশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব), আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) ও অশ্বারোহী পুলিশসহ পুলিশের বিভিন্ন কন্টিজেন্টের পক্ষ থেকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। প্রধান উপদেষ্টা গার্ড পরিদর্শন করেন ও সালাম গ্রহণ করেন। এ সময় পুলিশের আইজি নূর মোহাম্মদ তার সঙ্গে ছিলেন। Source:দৈনিক ইত্তেফাক
Date:2007-04-11

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: