বিবিসিকে হাসিনার ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া চোখের সামনে গুলি করতে দেখে মানুষ কি চুপ করে বসে থাকবে

জামায়াতের মামলা এবং তার পরিপ্রেক্ষিতে আদালতে দেয়া চার্জশিট প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষব্ধ প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করেছেন।  আমেরিকায় অবস্থানরত হাসিনা এ প্রসঙ্গে গতকাল বিবিসিকে টেলিফোনে তার অনুভূতি প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘আমি যেখানে আমার নিজের বাবার হত্যাকারীদের বিচার করেছিলাম প্রচলিত আইনে, সেখানে আমি যে হত্যা করতে পারি না বা হত্যা করি না এটা বাংলাদেশের মানুষ ভালো করে জানে। এগুলো যে মিথ্যা, ইচ্ছা করে দেয়া, তা জনগণ জানে। বরং ওইদিন তো আমার পার্টির লোককে হত্যা করা হয়েছিল। জামায়াত-বিএনপির সন্ত্রাসীরা পুলিশের সামনে প্রকাশ্যে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আক্রমণ করেছে মিছিলে। তারা প্রকাশ্যে গুলি করেছে। পরিষ্কারভাবে বলেছে- বৃষ্টির মতো গুলি করো, বৃষ্টির মতো গুলি করো। মরলে শহীদ, বাচলে গাজী। বৃষ্টির মতো গুলি করো। এবং তারা প্রকাশ্যে গুলি করেছে। জনগণ তখন খেপে গেছে। স্বাভাবিকভাবে আপনার চোখের সামনে মানুষকে এভাবে গুলি করে হত্যা করলে মানুষ কখনো চুপ করে বসে থাকবে?’ জামায়াতের বিরম্নদ্ধেও একই ধরনের মামলা হয়েছে- এ তথ্য জানানো হলে হাসিনা বলেন, ‘এটা কি করে হয়? পুলিশ তাহলে কি করতে চাচ্ছে? এ মামলা তো জামায়াত ইচ্ছা করে দিয়েছিল। মিথ্যা মামলা। জামায়াত তো খুন করতে অভ্যসত্দ। তারা ১৯৭১ সালে কি করে গণহত্যা, অগি্নসংযোগ, ধর্ষণ করেছে তা সবার জানা। সুতরাং এটা তো হতেই পারে।’ শেখ হাসিনা আরো বলেন, ‘জনগণ এর প্রতিবাদ করবে। আন্দোলন করেছি বলেই এখন দেশের জনগণ ইন্টারিম গভর্নমেন্ট পেয়েছে। আমরা আন্দোলন না করলে ইন্টারিম গভর্নমেন্ট আসতো না। আমরা ভোটের অধিকার রৰায়, জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার রৰায় আন্দোলন করেছি। আমি জনগণের জন্য কাজ করি। জনগণের স্বার্থে কাজ করি। যা কিছু করেছি জনগণের স্বার্থেই করেছি। জেল-জুলুমের পরোয়া করি না। আমরা পাকিসত্দানি সামরিক জানত্দার বিরম্নদ্ধেও ফাইট করেছি। আমি যা কিছু করি জনগণের কল্যাণেই করি। যদি ওরা মনে করে মামলা দিয়ে আমার দেশে ফেরা বন্ধ করবে তাহলে ওরা বোকার স্বর্গে বাস করেন। নানা রকম ঘটনা দিয়ে, এসব মামলা-টামলা দিয়ে আমাকে ঠেকানো যাবে না। মামলা দিয়েছে বলে দেশে ফিরবো না এটা কি ধরনের কথা? আমি আমার দেশে ফিরবো। জীবনের ঝুকি নিয়েই ফিরবো। দেশবাসীর ওপর ভরসা রাখি। জনগণের ওপর ভরসা রাখি।’ দেশে ফেরা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমি আগামীকালই দেশে ফেরার পরিকল্পনা নিয়েছি। ২৩ তারিখে ফেরার কথা। কিন্তু মামলা-টামলা দিচ্ছে বলে মনে হচ্ছে আরো আগেই চলে যাবো। আমার মেয়ে সাত মাসের প্রেগনান্ট। সে অবস্থায় গাড়ি চালিয়ে সে কাজে যায়। তাকে দেখতে যাওয়া দরকার। খুবই কষ্ট করে তাদের জীবিকা চলে। কিন্তু এখন ফ্লোরিডাতে যাবো কি না ভাবছি। ঢাকায় ফিরে যাবো। পেস্ননের টিকেট বুকিং দেয়ার জন্য আমি আমার পলিটিকাল সেক্রেটারিকে বলে দিয়েছি।’

সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/details.php?nid=5784

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: