খালেদা-হাসিনার বিদেশে যাওয়া-আসায় বাধা নেই

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বিদেশ যাওয়া-আসার ওপর সরকারের কোনো বাধানিষেধ নেই। কারণ সাবেক এই দুই প্রধানমন্ত্রীর বির\”দ্ধে সুনির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ নেই। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের যোগাযোগ উপদেষ্টা ও গুর\”তর অপরাধ দমন সংক্রানত্দ জাতীয় সমন্বয় কমিটির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল (অব) এম এ মতিন গতকাল মঙ্গলবার যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। অপরদিকে আইন, তথ্য ও পূর্ত উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন এ প্রসঙ্গে পৃথক এক আলাপে বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে রাজনৈতিক নেতাদের বিদেশ পাঠানোর কোনো উদ্যোগ নেই। বর্তমানে রাজনৈতিক সংস্কার চলছে। জেলের ভয়ে কেউ দেশ ছেড়ে যেতেও পারেন। দেশ ছাড়তে সরকার কাউকে বাধ্য করছে না।
উপদেষ্টা এম এ মতিন বলেন, খালেদা জিয়াকে বিদেশ পাঠানোর ব্যাপারে সরকারের তরফ থেকে কোনো প্রেসার আছে বলে আমার জানা নেই। তাকে বিদেশ পাঠানোর পরিকল্পনা সরকারের নেই। খালেদা জিয়া ইচ্ছে করলে বিদেশ যেতেই পারেন। এটা তার ব্যক্তিগত ইচ্ছার ব্যাপার। এছাড়া তার ছেলে আরাফত রহমান কোকোর বিদেশ গমনেও কোনো বাধা নেই। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে সরকার কোনো সমঝোতা করেনি।
খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠিয়ে দেয়া হচ্ছে বলে পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ মিথ্যা কি-না এমন এক প্রশ্নের জবাবে উপদেষ্টা বলেন, পত্রিকার খবর মিথ্যা আমি বলবো না, তবে তাকে বিদেশ পাঠানোর ব্যাপারে সরকারের কোনো উদ্দেশ্য বা ইচ্ছা সরকারের নেই। খালেদা জিয়া কখন কোথায়
যাচ্ছেন তা সরকার জানে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে যোগাযোগ উপদেষ্টা বলেন, উনি কখন যাবেন তা আমি জানি না।
কোকো গ্রেপ্তার হওয়ার পর গতকাল আপনি বলেছিলেন, তার বির\”দ্ধে দুনর্ীতির মামলা টাস্কফোর্স তদনত্দ করবে। গতরাতেই তাকে আবার বাসায় পেঁৗছে দেওয়ায় এ নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, এ প্রসঙ্গে আপনার মনত্দব্য কী? – প্রশ্ন করা হলে এম এ মতিন বলেন, আপনারা জানেন টাস্কফোর্স গুর\”তর অপরাধ ও দুনর্ীতির তদনত্দ করে থাকে। কোকোর বির\”দ্ধে দুনর্ীতির অভিযোগ আছে। তাছাড়া গ্রেপ্তারকৃতদের অনেকে তার ব্যাপারে তথ্য দিয়েছে। সেই বক্তব্য যাচাই করার জন্য যৌথবাহিনী তাকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দিয়েছে।
এই প্রথম একজন ‘বিগ শট’কে ধরে ছেড়ে দেওয়া হলো, সাংবাদিকদের এমন মনত্দব্যের জবাবে উপদেষ্টা বলেন, গ্রেপ্তারকৃত অন্যদের বক্তব্যের ভিত্তিতে তাকে আনা হয়েছিল।
সরকার সমঝোতার ভিত্তিতে কোকোকে ছেড়ে দিয়েছে কিনা_ এ প্রশ্নের জবাবে এম এ মতিন বলেন, এ ব্যাপারে কোনো সমঝোতা করা হয়নি।
কোকোর বিদেশ যাওয়ার ব্যাপারে কোনো বাধা আছে কিনা প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, তার বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই। প্রয়োজন হলে বিদেশ থেকে ফিরে আসবেন।
তারেক রহমানকে ছেড়ে দেওয়ার ব্যাপারে সরকারের সঙ্গে সমঝোতা হয়েছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে যোগাযোগ উপদেষ্টা বলেন, তার বির\”দ্ধে মামলা আছে। তাকে ছেড়ে দেওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।
হাইকোর্ট তারেক রহমানের চাঁদাবাজির মামলা ৬ মাস স্থগিত করেছেন_ এ প্রসঙ্গে উপদেষ্টা বলেন, এ বিষয়টা আমি এখনো জানি না। তা হলে হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুসারে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
রাজনৈতিক সংস্কার দুই নেত্রীকে দেশের বাইরে রেখে সম্ভব কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে এম এ মতিন বলেন, আপনারা জানেন বিভিন্ন সংস্কার চলছে। এই সংস্কারের প্রয়োজনে দুই নেত্রীকে বিদেশ পাঠানোর ব্যাপারে সরকারের কোনো সিদ্ধানত্দ নেই, ইচ্ছাও নেই।
আগামী ২৩ এপ্রিল শেখ হাসিনা দেশে ফিরছেন বলে খবর আছে। তার দেশে ফেরায় কোনো বাধা আছে কিনা- এ প্রশ্নের জবাবে এম এ মতিন বলেন, আমি যতোটা জানি কোনো বাধা নেই। তার সিকিউরিটির ব্যাপারে একটি প্রতিনিধিদল দেখা করেছে। আমি এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে বলবো।
জাতীয় পাটির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ ও জামাতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে বাধা আছে কি-না এ জানতে চাওয়া হলে উপদেষ্টা বলেন, না – বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে কোনো বাধা নেই।
অপরদিকে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন পূর্ত মন্ত্রণালয়ের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে এ প্রসঙ্গে বলেন, সরকার থেকে রাজনৈতিক নেতাদের বিদেশ পাঠানোর কোনো উদ্যোগ নেই। বর্তমানে রাজনৈতিক সংস্কার হচ্ছে। জেলের ভয়ে তারা কেউ দেশ ছেড়ে যেতেও পারেন। তবে দেশ ছাড়তে সরকার কাউকে বাধ্য করছে না।
কোকোকে ছেড়ে দেওয়ার প্রসঙ্গে ব্যারিস্টার মইনুল বলেন, তার বির\”দ্ধে অভিযোগ ছিল, যৌথবাহিনী জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দিয়েছে।

সূত্রঃ http://bhorerkagoj.net/online/news.php?id=11894&sys=1

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: