দেশত্যাগের আগে তারেককে দেখে যাবেন খালেদা জিয়া

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দেশত্যাগের সব প্রস্ততি প্রায় সম্পন্ন। আগামী ২২ এপ্রিলের মধ্যে যে কোন দিন তিনি সপরিবারে সৌদি আরবের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। এমিরেটস ও সিঙ্গাপুরের ফ্লাইটে বুকিং দিয়ে রাখা হয়েছে। যাওয়ার আগে খালেদা জিয়া কারারুদ্ধ জ্যেষ্ঠপুত্র তারেক রহমানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, খালেদা জিয়ার দীর্ঘদিন সপরিবারে বসবাসের জন্য সরকারের পক্ষ থেকে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ চলছে। সূত্র জানায়, রাজকীয় অতিথি হিসেবেই তিনি এ দু’দেশে থাকতে পারবেন। বেগম জিয়া দু’দেশেই দীর্ঘদিন থাকতে পারবেন। তাই দুই দেশেই তার জন্য বাসভবন ঠিক করা হচ্ছে। তবে ওমরাহ পালনের উদ্দেশে বেগম জিয়া প্রথমে সৌদি আরব যাবেন। সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবস্থিত বাংলাদেশের দূতাবাসের মাধ্যমে বিষয়টি গতকাল চূড়ান্ত হয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, দুই সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে বেগম জিয়া বিদেশ যেতে রাজি হলেও আপাতত তারেক রহমানকে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না। তারেক রহমানকে দেশে রেখেই দেশত্যাগ করবেন বেগম জিয়া। উন্নত চিকিৎসা অথবা জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর তারেক রহমানও পরে সৌদি আরব যেতে পারেন। এ বিষয়ে সরকারের উচ্চপর্যায়ের সঙ্গে বেগম জিয়ার পক্ষে একজন নেতা যোগাযোগ রক্ষা করছেন। আপাতত তিনি ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো, তার স্ত্রী ও দুই কন্যা এবং তারেক রহমানের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান ও কন্যা জাইমাকে সঙ্গে নিয়ে যাবেন। বেগম জিয়ার পাসপোর্ট গতকাল নবায়নের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। একই সঙ্গে সবার পাসপোর্টের বিপরীতে সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ভিসার কাজ সম্পন্ন করা হয়। পাশাপাশি সঙ্গে কিছু নগদ বৈদেশিক মুদ্রা দেয়ার ব্যবস্থাও করা হচ্ছে।

সূত্র জানায়, কারারুদ্ধ জ্যেষ্ঠপুত্র তারেক রহমানকে সঙ্গে নিতে না পারায় বেগম জিয়া তার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে যেতে চান। সরকারের পক্ষ থেকে অনুমতি দেয়া হয়েছে।
গতকাল তারেক রহমানের সঙ্গে কারাগারে শাশুড়ি, স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান ও কন্যা জাইমা সাক্ষাৎ করেন। গতকালও ছোট ভাই মেজর (অব.) সাঈদ এস্কান্দার ক্যান্টনমেন্টে বেগম জিয়ার বাসভবনে যান। অবশ্য সাঈদ এস্কান্দার বুধবার এক প্রতিবাদলিপিতে বলেছেন, বেগম জিয়াকে বিদেশে যাওয়ার ব্যাপারে তিনি কোন প্রস্তাব দেননি। সেখানে তার যাতায়াতের সঙ্গে কোন রাজনৈতিক সম্পর্ক নেই। Source:দৈনিক যুগান্তর
Date:2007-04-19

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: