পূর্বনির্ধারিত তারিখেই দেশে ফিরতে অবিচল শেখ হাসিনা

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে দেশে ফিরলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে সরকার ঘোষণা দিলেও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পূর্বনির্ধারিত তারিখেই দেশে ফিরবেন বলে জানা গেছে। যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফেরার পথে শেখ হাসিনা এখন লন্ডনে অবস্থান করছেন। ঢাকার বেসরকারি টেলিভিশন ‘চ্যানেল আই’কে উদ্ধৃত করে ভারতীয় টিভি চ্যানেল এনডিটিভি জানায়, শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী আব্দুস সোবহান গোলাপ বলেছেন, ‘আমাদের নেত্রী পূর্বনির্ধারিত তারিখেই দেশে ফেরার ব্যাপারে অবিচল রয়েছেন।’

এদিকে শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার ও গতকাল শুক্রবার লন্ডনে হাউস অফ কমনস ও হাউস অফ লর্ডসের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক করে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন। লন্ডন থেকে বার্তা সংস্থা ইউএনবির সংবাদদাতা শফিকুল ইসলাম জানান, হাসিনা গতকাল সন্ধ্যায় মানবাধিকার বিষয়ক ব্রিটিশ পার্লামেন্টারি কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান লর্ড এভেবারির সঙ্গে বৈঠক করেন। শেখ হাসিনার দেশে ফেরার ওপর সরকারি নিষেধাজ্ঞার ঘটনায় লর্ড এভেবারি উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তার মতে এটি মানবাধিকার লঙ্ঘনের শামিল। বৈঠকে ব্যারোনেস পলা উদ্দিন, শেখ হাসিনার বোন শেখ রেহানা, তার ছেলে রেদোয়ান সিদ্দীক, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সোবহান গোলাপ, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ সভাপতি শামসুদ্দিন খান, দলের ইইউ কোঅর্ডিনেটর এম এ গণি এবং সাবেক কাউন্সিলর এম এ রহিম উপস্থিত ছিলেন।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রী গতকাল বিকালে ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী স্টিফেন টিমের সঙ্গেও বৈঠক করেন। বৈঠকে দেশে ফিরতে তার ওপর নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আলোচনা হয়। ব্রিটিশ মন্ত্রী তাকে আশ্বস্ত করেন যে, কূটনৈতিক চ্যানেলের মাধ্যমে বিষয়টি বাংলাদেশ সরকারের কাছে তোলা হবে।

বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগ সভানেত্রী তার দেশে ফেরার বিষয়টি নিয়ে কয়েকজন ব্রিটিশ এমপির সঙ্গে আলোচনা করেন। বৈঠক শেষে শেখ হাসিনা সাংবাদিকদের বলেন, তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন এবং জনগণের জন্যই কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ‘আমি আমার দেশ সম্পর্কে কথা বলতে চাই এবং নিজ দেশে ফিরে যেতে চাই। আমি নির্ধারিত দিন রোববার বাংলাদেশে ফিরতে চাই।’

এদিকে লন্ডন আওয়ামী লীগের সূত্র জানায়, তারা শেখ হাসিনাকে বোর্ডিং পাস দেওয়ার জন্য ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের প্রধানকে অনুরোধ জানাবেন যাতে তিনি (হাসিনা) ঢাকা ফিরতে পারেন। এর আগে শেখ হাসিনা ডালাস থেকে হিথ্রোতে পৌঁছার পর ব্রিটিশ এয়ারওয়েজ তাকে তাদের অবস্থানের কথা জানিয়ে বলে দিয়েছে যে, বাংলাদেশ সরকারের ‘অ্যাডভাইস’ থাকার কারণে তারা তাকে লন্ডন থেকে ঢাকা ভ্রমণের বোর্ডিং পাস দিতে পারবে না।

আজ শনিবার পূর্ব লন্ডনের এডওয়ারি রোডে আওয়ামী লীগ কর্মীদের উদ্দেশ্যে শেখ হাসিনার ভাষণ দেওয়ার কথা রয়েছে। একই সঙ্গে আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ লন্ডন শাখা আজ লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশন অবরোধ করবে এবং শেখ হাসিনাকে দেশে ফেরার সুযোগ দিতে হাইকমিশনারের মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রধান উপদেষ্টা বরাবর স্মারকলিপি দেবে। Source:ভোরের কাগজ
Date:2007-04-21

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: