ইনডিয়ান পত্রিকার খবরে হতবাক ও মর্মাহত ড. ইউনূস

দৈনিক যায়যায়দিনের ২৪ এপৃল সংখ্যায় প্রকাশিত ‘ৰমতা পেলে সবার আগে ইনডিয়ার সঙ্গে সুসম্পর্ক’ শিরোনামের সংবাদটির ব্যাপারে আপত্তি জানিয়েছেন গ্রামীণ ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের একানত্দ সচিব মীর আখতার হোসেন। তিনি সংবাদটিকে মিথ্যা, বানোয়াট ও কল্পনাপ্রসূত উলেস্নখ করে কলকাতা থেকে প্রকাশিত দৈনিক সংবাদ প্রতিদিনের সম্পাদকের কাছে প্রতিবাদ পাঠিয়েছেন। প্রতিবাদলিপিতে তিনি লিখেছেন, ‘আপনার পত্রিকার ঢাকা প্রতিনিধির উদ্ধৃতি দিয়ে ঢাকা থেকে প্রকাশিত দৈনিক যায়যায়দিন-এ অদ্য ২৪ এপৃল, ২০০৭ তারিখে ‘ৰমতা পেলে সবার আগে ইনডিয়ার সঙ্গে সুসম্পর্ক’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি পড়ে প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস অত্যনত্দ হতবাক ও মর্মাহত হয়েছেন। আপনার পত্রিকার প্রতিনিধি জনাব ‘কৃষ্ণ কুমার দাস’ কোনো রকম অ্যাপয়েন্টমেন্ট ছাড়া আকস্মিকভাবে এসে প্রফেসর ইউনূসের সঙ্গে সাৰাৎ করার জন্য চাপাচাপি করতে থাকেন। তিনি তখন একটা মিটিংয়ে ব্যসত্দ ছিলেন। আপনার প্রতিনিধি জানাতে থাকেন যে, তিনি মাত্র এক মিনিট সময় নেবেন। একটি আমন্ত্রণপত্র দেয়ার জন্য তিনি এসেছেন। অবশেষে তাকে সময় দেয়া হলে তিনি কিছু কাগজপত্র প্রফেসর ইউনূসের হাতে তুলে দেন এবং কলকাতায় একটা অনুষ্ঠানে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানান। এরপর তিনি ফটো তুলে অফিস থেকে চলে যান।

তার কোনো সাৰাৎকার নেয়ার কোনো সুযোগ হয়নি। আমন্ত্রণ ব্যতীত অন্য কোনো প্রসঙ্গ উত্থাপিতও হয়নি।

প্রফেসর ইউনূসের সাৰাৎকারের যে রিপোর্ট তিনি পত্রিকায় লিখেছেন তার প্রতিটি শব্দই মিথ্যা, বানোয়াট ও কল্পনাপ্রসূত।

আমাদের বক্তব্য : দৈনিক যায়যায়দিন নোবেল জয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের সংবাদটি কলকাতার সংবাদ প্রতিদিনের অনলাইন সংস্করণ থেকে নিয়েছে এবং যথাযথভাবে সূত্রও উলেস্নখ করেছে।

সূত্রঃ http://www.jaijaidin.com/details.php?nid=7548

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: